আজ ১৬ বৈশাখ ১৪২৪, রবিবার

ভয়াবহ সেই দিনগুলিতে

জসীম উদ্‌দীন

জসীম উদ্‌দীন তাঁর কবিতাকে খাঁটি জীবনের প্রতিচ্ছায়া করতে গিয়ে সংকটকালীন মানব মনের বলিষ্ঠ বিবেকের মতো সোচ্চার কণ্ঠে প্রতিবাদ করেছিলেন। তাঁর এই বিশেষ বিদ্রোহীসত্তার পরিচয় মেলে ভয়াবহ সেই দিনগুলিতে [রচনা ১৯৭১, প্রকাশ ১৯৭২]। তাঁর এই বিদ্রোহের কবিতা-কলস আজ অবধি প্রায় অনালোকিত।

বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের উৎকণ্ঠাময় মুহূর্তগুলোতে তিনি এদেশের মানুষের- তাদের ঐতিহ্য, মর্যাদা এবং সাংস্কৃতিক মহিমাকে সমুন্নত রাখার প্রত্যয় নিয়ে যত্নে গেঁথেছেন কবিতা-কাঁথা। সেই ভয়াল সময়ের চমৎকার ভাষারূপ জসীমউদ্‌দীনের ভয়াবহ সেই দিনগুলিতে। গ্রন্থটি জাতীয় দুর্দিনে শিল্পীর সামাজিক ভূমিকার দলিল স্বরূপ| সর্বমোট ১৮টি কবিতা নিয়ে রচিত কাব্যটির রচনাকাল ১৯৭১ সালের মার্চ থেকে জুলাই পর্যন্ত।

সমসাময়িক পরিবেশকে চিত্রিত করার উদ্দেশ্যে রচিত হলেও শিল্প সুলভ সৌন্দর্যের হানি ঘটেনি। মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন সময়ে কবি তুজম্বর আলি ছদ্মনামে যুদ্ধ ও জাতীয় চেতনা-কেন্দ্রিক এ কবিতাগুলো রচনা করেন। কবিতাগুলো তখনই রাশিয়া, আমেরিকা ও ভারতে প্রেরিত হয়েছিল- বাঙালি জাতীয়তাবাদের প্রতি বিশ্ব-মানবতার নিরাবেগ সমর্থন জোগানোর প্রত্যাশায়।

ক্ষমতালোভী হানাদার বাহিনীর অত্যাচারের বীভৎসতা, হত্যাযজ্ঞ, শহর-গ্রাম, বাড়ি-বিপণীকেন্দ্র ধ্বংসের বাস্তবচিত্র অঙ্কিত হয়েছে জসীম উদ্‌দীনের বিদ্রোহী চেতনাজাত কবিতার পংক্তিতে পংক্তিতে। তৎকালীন পাকিস্তানি সামরিক শাসক নিরীহ-অসহায় বাঙালির ওপর যে বর্বরোচিত হামলা চালিয়েছে, তাতে কবি-হৃদয় ভীষণভাবে বেদনাক্লান্ত হয়েছে। আর সে কারণেই বাঙালির স্বতন্ত্র¿ রাষ্ট্র-প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে তাঁরও জোরালো সমর্থন ছিলো।

কবিতা কাব্যগ্রন্থ পঠিত
কবির নিবেদন ভয়াবহ সেই দিনগুলিতে ১১৭১ বার
বঙ্গ-বন্ধু ভয়াবহ সেই দিনগুলিতে ২৫০০ বার
ধামরাই রথ ভয়াবহ সেই দিনগুলিতে ১৫০২ বার
গীতারা কোথায় গেল ভয়াবহ সেই দিনগুলিতে ১১৭৯ বার