আজ ১১ বৈশাখ ১৪২৪, সোমবার

নবান্নের কবিতা
- লক্ষ্মণ ভাণ্ডারী - আমার কবিতা

গগনে সাদা মেঘ দেখি নাতো আর,
শরত ঋতু ধীরে ধীরে লয়েছে বিদায়।
মাঠে মাঠে ভরে আছে সোনার ধান
আনন্দেতে ধান কাটে চাষীরা সবাই।

ভোরের কুয়াশায় ছেয়েছে সারা আকাশ,
মোরগের কণ্ঠে শুনি ঘুম ভাঙার গান।
নবান্ন উত্সব আজ সবার ঘরে ঘরে,
উল্লাসেতে মেতে ওঠে বাঙালীর প্রাণ।

কৃষকবধু আলপনা আঁকে আঙিনায়,
দাওয়ায় বসে খোকন সোনা কাঁদে।
ঢেঁকির শব্দে জেগে ওঠে কিষাণপাড়া,
উনুনে কাঠের জ্বালে বধুরা ভাত রাঁধে।

তুলসীতলায় প্রদীপ জ্বালায় কূলবধু,
সন্ধে হলেই বাবলাগাছে পেঁচা ডাকে,
সাঁঝের আকাশে চাঁদ ও তারা উঠে
বাঁশ বাগানের ঝোপের ফাঁকে ফাঁকে।

রাত্রি নিঝুম ঘুমায় কিষান পাড়া,
কুকুরগুলো ঘেউ ঘেউ করে ছোটে।
রাত্তির কেটে ভোর হয়ে যায় শেষে
পূব গগনে দেখি ভোরের সূর্য ওঠে।

মন্তব্য যোগ করুন

কবিতাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে লগইন করুন।

মন্তব্যসমূহ