আজ ৭ কার্তিক ১৪২৬, মঙ্গলবার

নাসিম প্লাজা
- অধ্যাপক আব্দুস সালাম

এমন আজব খোদার গজব নাসিম-প্লাজায় পড়লো হায়!
কর্মে এসে অবশেষে মানুষ পুড়ে হইলো ছাই!
সন্তান হারা পাগলপারা বাবা-মায়ের কাঁন্নাতে,
প্রাণ বিদারী আহা জারি শোর উঠেছে জান্নাতে।
আসছে ফাগুন জ্বলছে আগুন পুড়ছে মানুষ দেশজুড়ে,
কোন্ পাপে হায় তাও বুঝি নাই জ্যান্ত মানুষ যায় পুড়ে!

হায়রে মাবুদ নেস্ত-নাবুদ আর কত কাল করবে হায়!
মহা মহিম তুমিই রহিম তোমার দয়ার অন্ত নাই।
বিশ্বজুড়ে মানুষ পুড়ে এখন মানুষ নিঃসহায়,
দয়া করে এদের তরে শান্তি আনো বিশ্বময়।
তুমিই ত্রাতা তুমিই দাতা, শক্তি দাও এ নিঃস্বকে,
তুমি সহায় তোমার দয়ায় শান্তি দাও এ বিশ্বকে।

শুনছি আমি ভরবে তুমি মানুষ দিয়ে জাহান্নাম,
মেহেরবানী তোমার জানি, মুক্তি পাবে লোক তামাম।
তাই মুনাজাত, তুলছি দুহাত, তোমার মহান দরবারে,
মুক্তি দিও শান্তি দিও মুক্তি দানের কারবারে।
আমরা পাপী আমরা তাপি তোমার দয়ার নেই সীমা,
সীমা লঙ্ঘন না করিলে করবে তারে সব ক্ষমা।

ওগো মহান দাওগো বিধান, কুদরতি তো সব তোমার,
সেই বিধানে আসুক নেমে, সুখের যেন বয় জোয়ার।
মোদের তরে ঘরে ঘরে কায়েম কর এই নিজাম,
মেহেরবানী তোমার জানি, মুক্তি পাবে দেশ তামাম।

মন্তব্য যোগ করুন

কবিতাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে লগইন করুন।

মন্তব্যসমূহ