আজ ৮ আশ্বিন ১৪২৭, বুধবার

একজন পাগলের আত্মকাহিনী
- জুনায়েদ বি. রাহমান

ঐ লোকটা?
হ্যা, ও পাগল! সারাক্ষণ কি যেন বলে! কেউ শুনে না। ও জানে ওর প্রলাপ শুনার মতো মানুষ এই শহরে নেই। তবু ও বলে! হয়তবা,কথার ছলে জড় পদার্থগুলোকে হিংস্র সভ্যতার গল্প বলে; নিজের জীবনের গল্প বলে।
জানো..... ঐ পাগলের ইতিহাস? না ও পাগল ছিলো না। ছিলো এক সংসারের কর্তা। যেখানে সর্গ ছিলো, আদরের সন্তান ছিলো, ছিলো এক অপরূপা মায়াবতী রমনী ও।


সেবার বৃষ্টিস্নাত ভোরে ওদের আঙ্গিনায় পাশের বাড়ির অন্দ্রিতার দেহ পাওয় গেলো। ক্ষত-বিক্ষত দেহ!
সে কিছুই জানতোনা; তবুও তাকে গ্রেফতার করা হলো।

তারপর তারপর,
একসময় কারাগারের বদ্ধপরিকরে শুনল প্রেয়সী'র অপমৃত্যুর বার্তা।
ও শেষবার দেখতে ছেয়েছিল। কিন্তু ওকে দেখতে দেওয়া হল না। উল্টো সাজনো হলো পাগল! দেওয়া হলো পাগলামির সার্টিফিকেটও। -সেই থেকে ও পাগল।


২৫/০৬/১৫ইং,রাত;
বড়লেখা, মৌলভীবাজার।

মন্তব্য যোগ করুন

কবিতাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে লগইন করুন।

মন্তব্যসমূহ
জুনায়েদ বি. রাহমান
০৮-১০-২০১৫ ০৪:৪২

ধন্যবাদ আপনাদের দুজনকে। মন্তব্যে অনুপ্রাণিত হলাম।

হোসাইন মুহম্মদ কবির
২৬-০৬-২০১৫ ১৩:৪৭

চমৎকার লেখনী

পথিক সুজন
২৬-০৬-২০১৫ ০৪:৪৬

দারুণ লিখেছেন