আজ ২০ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯, রবিবার

গরম গর্ত
- সাদমান সাকিল

আমি উষ্ণ গর্তে গিয়েছি গত রাতে!
সেখানে দেখি শত শত শুকনো পাখির পাখা-
এলোমেলো পড়ে আছে।
দেখি পিছলানো ঢালু পথ, স্যাঁতসেঁতে রাস্তা
অবশেষে কোন এক জায়গায় উষ্ণ প্রস্রবণ।
আমি পিছলানো পথে হেঁটে হেঁটে;
পথের সিক্ত বালুকাকে আঘাত দিয়ে দিয়ে
পৌঁছি প্রস্রবনণের নন্দিত পাড়ে।
তারপর আবেগী দেহখানি খানিকটা কাঁপিয়ে দিয়ে
উষ্ণ জলের ছোঁয়া পেতে পেতে আনন্দে চিৎকার দিই।
উল্কার গতিতে আমি ছোটে চলি গুহাসদৃশ গর্তের আদ্যোপান্তে।
অবশেষে সেই মুহূর্ত; রমণীর দেখা পাইঅবশেষে-
তবে-আমি নীরব-নিস্তব্ধ-নিস্পৃহ হয়ে গর্তের বাইরে চলে আসি।
বাইরে খুবই ঠান্ডা, শীতের জামা পড়তেই হবে...
-----------------------
সাহিত্য সম্পাদক, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রথম আলো বন্ধুসভা।
সাহিত্য সম্পাদক, গ্লোবালপোস্ট২৪ডটকম।

মন্তব্য যোগ করুন

কবিতাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে লগইন করুন।

মন্তব্যসমূহ