আজ ১৩ অগ্রাহায়ণ ১৪২৮, রবিবার

চৈত্রময় দুপুর
- মোঃ জুয়েল হোসেন - প্রথম সকাল

চৈত্রের দাহ খরা অবিরহ
বহিছে তপ্ত প্রান্তরে;
কর্কষী কাক দিয়ে যায় ডাক
ক্ষণে বায়ু মৃদু মন্থরে।

খাঁ খাঁ রোদ্দুর দেখি যতদূর
ধোঁয়াটে প্রকৃতি স্পন্দিছে;
ফোঁটা জল আশে’ শংকিত ত্রাসে
পশু-পাখি ফিরে ক্রন্দিছে।

সূর্যি ফোয়ারা অনলের ধারা
অকৃপণে দেয় বিলি;
গ্রীষ্মের ধরা ত্যাগি মোহ-জ্বরা
মরণে করিছে কেলি।

জলহীন নদ জনহীন পথ
প্রাণহীন মহি চুপি;
শুষ্ক ভূলোক সূর্যি আলোক
লইয়াছে বুঝি সঁপি।

তরুতৃণ দল নিস্তেজ বল
নমিছে আনত শিরে;
রাখাল বালক মুদিয়া দু’চোখ
গাহিছে করুণ সুরে।

বাসন্তী সাজ সৌখিন লাজ
ভূষণ রাখিয়া আড়ে;
নববধূ কোলে রান্নার জলে
পুকুর ঘাটের ভিড়ে।

ঝিম ধরে আসে হালকা বাতাসে
দুপুর রোদের ছায়;
আম্র মুকুলে মধুবাহী ফুলে
ভোমরাটা গান গায়।

দূর গ্রাম হতে একতারা হাতে
বাউল তানের না’য়ে
জীবনের ঘ্রাণ খুঁজে পায় প্রাণ
সুরচঞ্চিত বা’য়ে।

মন্তব্য যোগ করুন

কবিতাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে লগইন করুন।

মন্তব্যসমূহ