আজ ২৯ অগ্রাহায়ণ ১৪২৫, বৃহস্পতিবার

"জন্মদিনে"
- Md. Osmangani shuvo

অরুণ - রবি যেমন কিরণ দিয়ে যাবে দিনে
তেমনি তোমার মানব জনম কেটে যাবে ঋনে।
স্বর্গ তুমি পাবে বলে করো নাকো হেলা
মনের কুঠিরে নোঙর দিয়ো নাকো বিদেশী ভেলা।

পদ্ম -পাতার জলও করে অবাক চাহনি খেলা
জীবন যাবে, যৌবন যাবে, ফুরাবে রঙ্গের মেলা।
সময় থাকিতে সাঙ্গ করো লেনা-দেনা প্রাণের
বকের ব্যথা বুকে চেপে কষ্ট দিওনা মনের।

রঙিন দুটি ঠোঁটও ধূসর হবে কোনো দিবসে
দুঃখ দিলে ;দুঃখ পাবে ;হাসবে নাকো হরষে।
কুন্তল তলে ঠাঁই দিয়ো তুমি প্রিয় পাত্র
ভালোবেসে অমর হবো, হবো তোমার ছাত্র।

মনের ঈষাণ কোণে উঠিবে যেদিন মহান তপন
দেখিবে সেদিন সত্য হয়েছে অবাক করা স্বপন।
মনের মাঠে করো গো, হে তুমি প্রেম বপন
জীবন হবে খুবই সুন্দর, সুন্দর হবে যাপন।

আদিতে মানব মনে ছিলো নাকো কভু দ্বন্দ্ব
দ্বন্দ্বের উদ্ভব; হরষের বিদায়, মানব হয়েছে অন্ধ।
কালে কালে কতো মহান নারী এসেছে ভূবনে
তুমি থাকবে মম মনে নীরবে আত্ম - গোপনে।


মহান মহান করি মোরা মহান হয়বা কজনে
মহান মোরা বলিবো তারে মহান যিনি স্ব-জনে।
কিসের গর্ব, কিসের অহং, অবাক করা সৃজনে
মরণ দিনে থাকবে নাকো উঁচু করা তর্জনী।

স্বর্গ-নরক গিয়েছে যে,সে জনা জানে কাহিনী
পাপি হলে আজাবে খাবে, খাবে তোমাকে ডাইনী।
ধরার সুখও ধরায় থকিবে, সবাই হাসিবে হাসি
জঘন্য পাপও করিলে তুমি হবে নরকের দাসী।

আঁখি দুটি ঝলসে যাবে আগুনের পরম গুণে
মিথ্যে অহং ধ্বংস হবে এসব কথা শুনে।
থাকবে নাকো সু-টোল পড়া গালও সেদিন সময়ে
আসতে সেদিন অকাজ গুলি দিয়ো -নিজে কমিয়ে।

থাকবে নাকো রুপের বাহার থাকবে নাকো সুদিন
সেদিন কথা এনো মনে, লক্ষ্য করো আজ দুদিন।
কথার তুবড়ি দিয়ে কাজও হবে নাকো হাসিল
দেহের আকৃতি থাকবে নাকো, থাকবে শুধুই ফসিল।

যেখানে যাবে পাবে নাকো শুনতে জয়ের ধ্বনি
খারাপ হলে, ভালো হবে, কাঁটবে তবে শনি।
মাতাল ছেলেরা দলে দলে লাগায় মনে আগুন
মধু খেয়ে উড়াল দিবে, ফুরাবে বসম্ত - ফাগুন।

বাসবে ভালো বাসবে তাকে যেজন করে স্মরণ
জয়ী হবে জয়ী রবে পুঁড়বে নাকো চরণ।
মিটবে আশা মিটবে সবই যদি থাকো ঋনে
থাকো ভালো থাকবা ভালো শুভ জন্মদিনে!

মন্তব্য যোগ করুন

কবিতাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে লগইন করুন।

মন্তব্যসমূহ