আজ ৩ আষাঢ় ১৪২৬, রবিবার

উনিশশো বায়ান্নর একুশে
- আকছার মুহাম্মদ - নিরাশ্রয় পাঁচটি আঙুল

লক্ষ অহর্নিশ প্রান চেয়েছিল ভাষা, দেশ
স্বাধীন, স্বাধীনতা মুক্তির পরিবেশ।

জীবন দিল, সাহস দিলো ছাত্র - যুবক,
কামার-কুমার দাসী বান্দি দেবতা.....
প্রেরণার , উনিশশো বায়ান্নর একুশে
স্লোগানে কেপে উঠল সারা ভূখন্ড, মাতৃভূমি।

রাষ্ট্র ভাষা বাংলা চাই,
বীর বাঙালি অস্ত্র ধরো,
বাংলাদেশ স্বাধীন করো।

মায়ের ভাষার জন্য সালামের রক্ত,
রফিকের রক্ত,
বরকতের রক্ত,
জব্বারের রক্ত,
শফিউরের রক্তে - দিনের সূর্য লাল হলো
কৃষ্ণচূড়ার রঙে লিখে দিতে বর্ণমালা।

ফাগুনের আভা ছাড়িয়ে ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়ল রক্তের শীর্ষ কণা রাজপথে
শোষনযন্ত্রের মারণাস্ত্রে, থেতলে গিয়েছিল
ভোরের উজ্জ্বল সকাল, অন্ধকার পেড়িয়ে
গর্জন ছুটলো মুক্তির তেজস্বী দাবানল।

জীবন দানে মুক্ত হলো ভাষা,
ঊর্ধ্বলোকে দাড়ানো শহীদ মিনার - প্রেরণা।

একুশ শতকের একুশে, দরজায়
ভাষার নির্জনতায় স্তব্ধ, ৫৭ হাজার বর্গমাইল।
একুশের শোষক নেই,নেই খাকি পোষাকের
তাবেদার, তবুও চৌরাস্তার মুড়ে
আজও কত মায়ের বুক খালি হয়
মায়ের দেশের জন্য,আর্তনাদ আর্তচিৎকারে কত যুবক বীর সেনানী হয়ে,কাটাতারে ঝুলে
হন্য হয়ে খুঁজে মুক্তি.....!
কথা বলার, চলার, নিষ্কণ্টক দিগন্তের!

ভ্রাতৃঘাতী জালিমের হাতে আজ খুন্তি
বুটের নিচে চেপে ধরেছে তুটি;
পিষ্ট হতে হতে জিঞ্জির গোলামী।

একুশে'র সালাম রফিক বরকত জব্বার
আবার একটি মিছিল নিয়ে এসো
রাজপথ কাপিয়ে চিৎকার করে বলি
গনতন্ত্র পাক মুক্তি।।

মন্তব্য যোগ করুন

কবিতাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে লগইন করুন।

মন্তব্যসমূহ
আকছার মুহাম্মদ
০১-০৩-২০১৯ ১০:১০

মন্তব্য করুন