আজ ২৯ আশ্বিন ১৪২৬, সোমবার

চেতনার স্মৃতিচারণ
- ফয়জুর রহমান সজীব - স্বপ্ন ও ভালোবাসা

আমি তরুন-
আমি আগামীর প্রতিনিধি,
আমি চেতনা বুঝি,
আমি লাখো মায়ের ইজ্জত হারানোর দুঃখ বুঝি,
আমি হাজার তরুনের তাজা লোহিত কণিকার দাম জানি,
আমি শিহরিত হই সমাজপতিদের পৈশাচিক থাবায়,
আমি দেখিনি সালাম, রফিক,শফিক
যারা রক্ত দিয়েছিল ভাষার জন্য,
কিন্তু আমি ভুলিনি তাদের,
ভুলিনি সে চেতনা।
ভুলিনি শহীদ জননী-
জাহানারা ইমামের চোখের পানি,
আমি দেখেছি তোদের শৈরাচার।
আমি দেখেছি রানা প্লাজার সোহেল রানাকে-
যে বেঁচে গিয়েছে লাখো প্রাণনাশ করে,
আমি ভুলতে পারিনা জাতির পিতার -
চেতনার ১৮মিনিট,
আমি কেঁদে উঠি ভেবে ১৫ তারিখ,
কালো রাত ছিল আবারো।
আমার চোখে ভেসে আসে সেনা সদস্যদের -
পরিবারের মরা কান্না,
যারা দেশ বাঁচানোর প্রতিজ্ঞা করেও
হয়েছিল হত্যা।
সাগর রুনিকেও ভোলা হয়নি,
সত্যপ্রকাশক ছিল তারা।
কিন্তু তারাও বাদ যায়নি
হত্যার কালোথাবা থেকে,
কিন্তু -
বিচার হয়নি কারো।
আমি চোখের সামনে দেখেছি -
নুরু,রাশেদ কিংবা লুমার মতো
লাখো অগ্রজদের
যারা আমাদের শিখিয়েছে
"হয় করো,নাহয় মরো"
অন্যায় মেনে নেয় কাপুরুষ।
আবার মুদ্রার বিপরীতে দেখেছি
অনেক তরুনভাইদের বিগড়ে যাওয়া,
যাদের মাঝে ভুলকে স্বীকৃতি দেওয়ার প্রবণতা
আর সত্য কাজে দেয় বাধা।
আমার সহপাঠীরা তাই ভুলেনি
রাজীব ভাই কিংবা মিমকে-
যারা পিষ্ট হয়েছিল প্রতিযোগিতার
চাকার নিচে,
রোজ রোজ পিষ্ট হচ্ছে অনেক স্বপ্ন
যারা বাড়ি ফেরাতেই সম্পন্ন হতো
শত আশা।
তখন আমরা দেখিয়েছিলাম রাষ্ট সংস্কারকাজ,
আমরা তখনই বড় হয়েছি সমাজের বুকে-
যখন বুঝেছি ভালো কিংবা খারাপ,
আমরা অমানবিক নই,
আমরা সত্যকে লুকানোর মতো ভীরু নই,
আমার বোনেরা সহসাই ভাইদের হাতে হাত রাখতে জানে,
তারা ভাইয়ের হাতেই নিরাপদ।
কোটা কিংবা নিরাপদ সড়ক আন্দোলনে,
লাখো বোন সামনে এসেছিল সত্য ছিনিয়ে আনতে,
তারাও জানতো সময়টা কমপ্রোমাইজ নয় সেক্রিফাইজ করার,
জাতির জন্য কিছু করার,
সেখানে তারা লাঞ্চিত হয়নি।
কিন্তু তারা অনিরাপদ -
জাতির জনকের জন্মদিনে,
তারা অনিরাপদ বাসে,রাস্তায় কিংবা ফুটপাতে,
জানিনা সমাধান কি?
কিন্তু জানি সব পরিস্থিতি বদলে যাবে
ইতিহাসের অপব্যখ্যা বন্ধ হবে,
সমাজ নিরাপদ হবে,
স্বাধীনতা বল হয়ে পদদলিত হবে না কারো নোংরা পায়ে,
স্বাধীনতা বিক্রি হবে না,
ভালোকাজ সেচ্ছায় স্বীকার করবে সবাই,
না বুঝে তরুনরা ভুল করবে না,
আমরা অনড় থেকে ছিনিয়ে আনবে বিজয়,
আমি গৌরববোধ করি,
আমি বাঙালি।
আমি বাংলাদেশের সন্তান,
এখানে বাক্স্বাধীনতা আছে,
বাকপরাধীনতাও আছে,
আমরা জানি এখানে-
ধর্ম, জাতির কোনো ভেদাভেদ নাই,
বিশ্বাস করি-
"মোরা একি বৃন্তে দুটি ফুল হিন্দু মুসলমান "।

মন্তব্য যোগ করুন

কবিতাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে লগইন করুন।

মন্তব্যসমূহ