আজ ৩ আশ্বিন ১৪২৬, বুধবার

সখী আজ তোমার বিদয়
- রূপক বিশ্বাস

তুমি যেথা যাইবে
আমি হেথা আগেই পৌঁছাব
নীরবতার দেশে লক্ষিন্দর -এর বেশে
তোমাকে ভালোবেসে।
নদীর আঁকা-বাঁকা পথের স্রোতে
ভেসে যাব দ্রুতে,
স্পর্শ নাহি পাবে মোরা জলের স্রোতের।
বছর চার-এক হল বেসেছিলাম ভালো
কিন্তু আজ আমার মনের নিশি নেমে এলো।
খাঁচা থেকে অচিন পাখি আজ উড়ে গেল
এই জীবনে দেখা দিলো সৈকতের আলো।
বধূ বেশে: পরনে লাল শাড়ি, রক্ত আলতা পায়, হাতে শাঁখা, সিথীতে সিঁদুর
তোমাকে নিয়ে যাবে এক অচেনা বিদুর।
তোমার ঐ মিষ্টি মুখের হাসি
থাকবে না তখন আর বেশি-
পাবে কষ্ট, গড়বে বেদনার বালু চর
যে চরে আমি হবো পর।
বাঁধবে ঘর, পাবে সুখ করে জীবন আমার নষ্ট
তুমি হবে তোমার স্বামীর সর্বশ্রেষ্ঠ।
মনে পড়বে তোমার স্মৃতি,
মনে পড়বে তোমার কঙ্কিত লাবণ্য মুখ,
এই মনই জানে-
পাবে তুমি তোমার স্বামীর সুখ।
সখী আমার এই বিপন্নে দু-চোখ্যু জলের তরে,
শব্দহারিত কন্ঠে, একটাই প্রশ্নের ঢেউ উঠবে এ মনের পাঁজরে-
সখী তুমি আমাকে ভাসালে কি কারণে দুঃখের সাগরে?

মন্তব্য যোগ করুন

কবিতাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে লগইন করুন।

মন্তব্যসমূহ