আজ ২৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, রবিবার

খোকা তুমি বঙ্গবন্ধু
- জান আহমেদ

শৈশব কেটেছে আদরের,
মা-বাবার হৃদয় আদলে।
ছেলে ছিল নক্ষত্র, জানতো না সে তখন,
হবে যে সে সবার স্বাধীনতার প্রাপ্য জীবন।

ছেলে তুমি নক্ষত্র জাতির আশার আলো,
খোকা নামে তোমায় শুনতে লাগে ভালো।
ছেলে তুমি আওয়াজ তুলে ছিল সেদিন,
খোকা বলেছিলে ছাদ মেরামত করবে শীগ্রই যেদিন।

ছেলে তুমি সবার মনে বেঁধে ছিলে ঘর,
খোকা সেদিন দেখে ছিল দারিদ্র অনটল।
ছেলে দাড়াতে চেয়ে ছিল দারিদ্র মাঝে,
খোকা তো! তাই বয়স দিচ্ছিলো নাহ নিজ পানে।

ছেলে হল বড় দিল যৌবণে পা,
খোকার মাথায় ঘুরছে করবে কিছু হবে নাকো পিছু পা।
ছেলে হলো নেতা সবে! সব মোকাবেলা করে,
খোকা হটাৎ থমকে! শুরু তো এবার যুদ্দে।

ছেলে এবার দিল ভাষণ,
খোকার কোথায় কোটি প্রাণ দিলো গর্জন।
ছেলে তুমি সবার মনে রবে, তুমি বীর হয়ে,
খোকা তাই তো! তুমি বীর নাহ শুধু, নহে।

খোকা তুমি জাতির পিতা
লাখো কণ্ঠে গর্জিত ধনী
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।
ধন্য পিতার এই ধন্য দেশে
গর্বিত আমি, ধন্য আমি বাঙালি হয়ে।

মন্তব্য যোগ করুন

কবিতাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে লগইন করুন।

মন্তব্যসমূহ