আজ ২১ আষাঢ় ১৪২৭, রবিবার

তোমাদেরই জ্ঞ্যাতী
- জ্যোতি রমণ

আমিও তোমাদের জ্ঞ্যাতী, তোমাদেরই জাতী
তোমাদেরই সমাজের।
তোমাদের প্রভু সাজার জন্য
আলাদা বেশ করেছি নিজের।

এই প্রকৃতিই আমারও জনক
বাচি বাড়ি এই প্রকৃতিতেই
প্রকৃতির হতে সবকিছু নিয়ে
আঘাত করি এ প্রকৃতি কেই।

তোমরা যেমন বনেতে চরো
উড়ে ফেরো আকাশে
খাবার পেলেই খুশি থাকো
বাসা বাধো বাচার তাগিদে
বংশ বিস্তার মৈথুন তৃষ্ণা
সবই তোমাদের আছে
টেকনোলজি নাই বলেই তো
তুচ্ছ্য খেলনা প্রকৃতির কাছে।

আমিও তোমাদের মতো
প্রকুতির হাতে বন্ধি
নিজেকে নিয়ে বাচার জন্য
তৈরী করেছি নানা ফন্দি।

নিজের রাজত্ব গড়ার আশাই
কঠোর শ্রমো রাত্রী দিন
সকল কে করাতে মাথানত
আমি যে শান্তি হীন।

মুক্ত থাকতে গড়িনা সংসার
যৌনতা করি করি না বংশ বিস্তার
যা কিছু করি পৃথিবীর বুকে
সব কিছুতেই নিজ স্বার্থ থাকে।

তোমাদের চেয়ে সভ্য বলেই
পাল্টে ফেলেছি বেশ
কত ক্ষমতা কত সম্মান পাই
কত সাধু কত দরবেশ।
ছাড়তে পারিনি পশুত্ব তবু
হয়েছি তৃষিত অত্যাচারী প্রভু।
যত যাই করি নেই নিস্তার
তবু প্রকৃতির হাতে বাধা শিকার।।
০৩/০৫/২০২০

মন্তব্য যোগ করুন

কবিতাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে লগইন করুন।

মন্তব্যসমূহ
ফয়জুল মহী
২৮-০৫-২০২০ ১৩:৫৪

Excellent