আজ ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, মঙ্গলবার

ভাষার কবিতা-২
- শ্রাবণ আহমেদ - বিষাদের দেশে সখ্যতা

বিদীর্ণ আলোয় জ্বলছিলো রাত
পবিত্র সন্তানের হাতে-
অর্থ নয়, বৈভব নয়
তার হাত মুঠো করে আছে ভাষা! বাংলা!
কণ্ঠে ভাষা; রন্ধ্রে ভাষা

অভেদ্য বিশাল হিমালয় দাড়িয়ে যাক
অথবা হাতের ঐ প্রতীক চিহ্ন নিশ্চিহ্ন করে দিক
পারবেনা, তারা কিছুতেই পারবেনা

পাথরের মিনার ভেঙেছে? ভাঙুক
সহস্র নদী বয়ে নিয়ে চলেছে স্বরবর্ণ
পলিমাটি গড়িয়ে উর্বর করেছে এ মাটি
কোটি সন্তানের রক্তে রক্তে ঢুকে গেছে একুশ

কী বললে গুলি করেছে? করুক
মৃত্যুর অন্ধকারে ডুবে যাক কতিপয়
তাতে কী?
পারবেনা, তারা কিছুতেই পারবেনা!

যে অস্তিত্ব চির ভাস্বর; তাকে মুছে ফেলার
কে আছে
যেখানে শোকের স্তব্ধতা নেমে আসে, যেখানে
রক্ত প্লাবিত হয় উলঙ্গের মতো
সেখানেই ফের জাগে বিদ্রোহ
হৃদপিন্ডে ঘনঘন স্পন্দিত হয় বিদ্রোহ
পারবেনা, তারা কিছুতেই পারবেনা!

মন্তব্য যোগ করুন

কবিতাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে লগইন করুন।

মন্তব্যসমূহ