আজ ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, মঙ্গলবার

আবর্তনের খেয়ায়
- শাহানাজ সুলতানা (শাহানাজ)

জানি চলে যাবে যেতেই হবে
এ যে প্রতিটা কর্মজীবী মানুষের ছকে বাঁধা জীবন।
তারা ঘুরে ফেরে এ শহর থেকে সে শহর।
কত চেনা মুখ হয়ে যায় অচেনা
কত অচেনার সাথে হয় পরিচয়, কত অচেনা বন্ধু হয়
সময়ের সাথে অপরিচিত মানুষ হয়ে ওঠে আপনার আপন।

আবর্তনের খেয়ায় জন্মনেয় কত স্মৃতি
কত উদাস দুপুর,বিষন্ন গোধূলী, জোছনা-মাখা রাত…
ফেলে আসা ক্ষণগুলো হৃদয় তটে ভীড় করে।
উজ্জ্বল পংক্তিমালার নীচে চাপা পড়ে কত প্রেম
তৈরি হয় মর্মভেদী সহস্র সহস্র হৃদয় বিদারক দীর্ঘশ্বাস -
কত বিপ্লবী প্রেম স্মৃতি হয় ইতিহাসে গাঁথা।

একটু বিশ্রামে সেই সব সকাল-দুপুর-সন্ধ্যা-
নিশার পটভূমিতে কোন কোন মুখ অবিকল মনে জাগে,
হৃদয়ের অতলান্তে তোলে ঝড় ….
ইচ্ছে হয় পুরনো স্মৃতির শহরে দৌড়ে ফিরে যাই।

কিন্তু তুমি কি আসবে আস আমার এ শহরে?
ঝড় তো দূরে থাক আমাকে মনে রাখার মত
তেমন কোনো স্মৃতি দানা বাঁধেনি তোমার মনে।
বাধবেই বা কেমন করে
একদিন একুশের বই মেলার একটা বুক স্টলে
তোমার সাথে প্রথম দেখা প্রথম পরিচয়।
তারপর অবশ্য চলার পথে দু-চারবার দেখা হয়ে কথা কথা হয়ে
কিন্তু তাতে কি আর স্মৃতি দানা বাঁধে?

কথাছিলো একটা দিন তোমার সাথে ঘুরবো
হাঁটবো হাতে হাত রেখে সমন্তরাল রেললাইন,
আঁকাবাঁকা পথ, ছায়াঘন বন, রূপসার পাড়।
দুপুরের জ্বলন্ত রোদে পুড়ে ক্লান্ত হবো,
পড়ন্ত বিকেলের ঝিরঝিরে হাওয়ায় উড়বে কুন্তল
আমরা আবৃত্তি করবো ডজনখানেক কবিতা।

কিন্তু ব্যস্ত সময়ের ভীড়ে সে সময় আর হলো কোথায়
বেজে উঠলো তোমার বিদায় ঢংকা
আমাদের আর দেখা হোক বা না হোক স্মৃতি জন্ম নিক বা না নিক
ইচ্ছে তো জেগেছিলো মনে এটাই বা কম কিসে..................।।

মন্তব্য যোগ করুন

কবিতাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে লগইন করুন।

মন্তব্যসমূহ