আজ ১৪ আষাঢ় ১৪২৯, মঙ্গলবার

তুমি চির বিদ্রোহী বীর
- মিটু সর্দার

বিদ্রোহী বীর
শব্দের ধারালো ছুরিতে কেটেছিলে হাজারো শির
কে পারে তুলতে তোমার মতো?
বাঁশের বাঁশিতে এমন মাতাল করা বিরহী সুর
ছড়াতে পারে ধুমকেতু,জ্বালাতে পারে বীণায় অগ্নি।
তুমি নজরুল, তুমিই দুখু মিঞা
তোমার তরে কাঁদে মম হিয়া।
তুমি বদ্ধ ঘরে না থেকে জগতটাকে দ্যাখতে চেয়েছিলে
যুগান্তরের ঘুর্ণিপাকে কেমন করে মানুষ ঘুরছে
কিসের নেশায় লাখো মানুষ মরছে।

তুমি বিদ্রোহী বীর
সর্বহারা'কে দ্যাখিয়ে ছিলে নীড়
প্রিয়ার খোঁপায় গুঁজে ছিলে দোলন-চাঁপা, ঝিঙে ফুল
প্রলয় শিখার গান গেয়ে ভেঙেছিলে জিঞ্জির।
বুকের অলিন্দে সিন্ধু-হিন্দোল খেয়েছিলো দোল
ভেঙে ছিলে অত্যাচারীর রুল, হ'য়ে ছিলে নিথর হারিয়ে বুলবুল।
সন্ধ্যা আঁধারে পুবের হাওয়ায় শুনিয়ে ছিলে আগমনী গান
শেষ সওগাত হয়নি শেষ, আড়ালে আবডালে চলছে বেশ।

বিদ্রোহী বীর
জাহান্নামে বসে তোমার মতো কে হাসতে পারে পুষ্পের হাসি
বিদ্রোহের, মানবতার, সাম্যবাদের সুর ঝরিয়ে ছিলে রাশিরাশি।
তোমার মতো আর কে আছে এমন উন্মাদ
ভগবান বুকে এঁকে দিবে পদচিহ্ন
নব সৃষ্টির মহানন্দে উপড়ে ফেলবে অধীন বিশ্ব।
ভয়ে বিট্রিশের বুক কেঁপে ছিলো থরথর, উঠে ছিলো ঝড়
কে রুখতে পারতো তোমার পথ
তুমি ছিলে দুর্ব্বার, ভেঙে করতে সব চুরমার
মানতে না কোন আইন, ভরা-তরী করতে ভরা-ডুবি।

তুমি চির বিদ্রোহী বীর
বিশ্ব ছাড়ায়ে উঠায়ে ছিলে একা চির উন্নত শির।

২৪/০৫/২০২২ সৌদি আরব

মন্তব্য যোগ করুন

কবিতাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে লগইন করুন।

মন্তব্যসমূহ