আজ ১৪ আষাঢ় ১৪২৯, মঙ্গলবার

তুমি তোমার মতো
- মিটু সর্দার

তোমার প্রতি আমার কোন অভিযোগ নেই
সুখের জন্য মানুষ মাথার ঘাম পায়ে ফেলে -
রাতদিন অক্লান্ত খাটুনি খাটে।
খানিকটা সুখের জন্য মানুষ কি-না করে
দেশের পয়সা চুরি করে ভিনদেশীদের ব্যাংকে পুরে
সুখের পথে কাটা হ'য়ে দাঁড়ালে -
মূলশুদ্ধ উপড়ে ফেলে।
প্রখর রোদে গায়ের সফেদ চামড়া পুড়িয়ে -
কয়লার মতো কালো করে
পৃথিবী থেকে মঙ্গলে -
মঙ্গল থেকে শুক্র, নেপচুন, ইউরেনাস
হয়তো একদিন সৌরজগতেও পাড়ি দিবে।
সুখের তরে মানুষ ঘরবাড়ি ছেড়ে -
স্বর্গ-মর্ত্য-পাতাল যায়
সাত সমুদ্র তেরো নদী পাড়ি দেয় -
তুমি তো কেবলমাত্র আমাকে ছেড়ে গিয়েছো।
আমি পুরুষ না হ'য়ে যদি নারী হতাম
আমিও তা-ই করতাম, যেটা তুমি করেছো
কে চায় নিজেকে পুড়াতে?
চারপাশে এতো সুখ খেলা করছে দ্যাখলে কি -
নিজেকে আর সামলিয়ে রাখা যায়?
আসলে ছেড়ে যেতে হিম্মত লাগে
বুকের অলিন্দে লাগে জিগার
এ দুটোই তোমার ছিলো
তাইতো হাতে তুড়ি মেরে, সবকিছু মাড়িয়ে -
নাকের ডগা দিয়ে চলে গেলে সুখের সন্ধানে।
তোমাকে আমি খারাপ ভাবিনা, আবার -
ঐ মহীয়সী নারীদের সাথে তুলনাও করিনা
যাঁরা নিজেদের সুখ বিসর্জন দিয়ে
অন্যের সুখের তরে প্রতিনিয়ত কষ্টের অনলে পুড়ে ছাঁই হন।
যাঁরা এই পুড়াকে সুখের একফালি চাঁদ হিসেবে -
মানিয়ে নিয়েছেন আমি তাদের সাথে তোমাকে তুলনা করিনা
তুমি তোমার মতো, অতুলনীয়, অনন্য, অনিন্দ্য।

০৪/০৬/২০২২ সৌদি আরব

মন্তব্য যোগ করুন

কবিতাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে লগইন করুন।

মন্তব্যসমূহ