শীতল অপরাহ্ন
- মুহাম্মদ আস্রাফুল আলম সোহেল ২৪-০৭-২০২৪

পৌষালি শীত ।
চারিদিকে কুয়াশার আধিপত্য ।
কখনো ইলশেগুঁড়ি বৃষ্টির সাথে ঝড়ো হাওয়া ৷
যেন মরার উপর খাড়ার ঘা ।
বিপর্যস্ত জনজীবন, অসহায় মানুষ ।
এক নিদারুণ মর্মব্যথা!
অনেকেই সহায়তার হাত বাড়িয়ে দেন ।
তা সত্ত্বেও, প্রকৃতির বৈশিষ্ট্যে ব্যত্যয় ঘটে না ।
কনকনে ঠাণ্ডায় শরীরের রক্ত সঞ্চালন ব্যাহত হয় ।
রক্তিম নাকের ডগা এবং হাত-পা’র আঙ্গুলগুলো অনুভূতিহীন ।
অচৈতন্য নীলাভ কর্ণ-লতা ।
অক্ষিপল্লবে জমে থাকা শিশিরবিন্দু ঝরে পড়ে ।
তবে কি, আনন্দের অশ্রুধারা ।
হয়তো ঈশ্বরের কৃপা ।
কিংবা প্রকৃতির আশীর্বাদ, না-কি প্রতিশোধ ।
কে জানে?
শীতল অপরাহ্ন ।
প্রেয়সী’র ভালোবাসা, মার্জিত নম্র স্পর্শ এবং উষ্ণতার অপেক্ষায় ।
এখানে আছে স্বর্গসুখ আর এক ঐশ্বরিক শক্তি ।
কুয়াশার ফাঁক গলিয়ে সূর্যের এক চিলতে হাসি ।
নির্বাক বসে আছি ।
নিজ আত্মার কাছে শত জিজ্ঞাসা?
জটিল হিসাবনিকাশ ।
এ মনভূমিতে স্বপ্ন এবং প্রত্যাশা’র বীজ অঙ্কুরিত হয় ।
আগামী’র হাতছানি ।
কিন্তু ধৈর্যহীনতা, নৈরাশা এবং দুর্ভাগ্য তাদের প্রতিদ্বন্দ্বী ।
দুটি ভিন্ন মেরুতে পক্ষ-বিপক্ষের অবস্থান ৷
প্রাপ্তি-অপ্রাপ্তি’র তীব্র প্রতিযোগিতা ।
এক অদৃশ্য-দৃশ্যমান প্রতিকূলতা ।
তবুও, এরা দ্বৈরথে অবতীর্ণ ।
কে প্রতিষ্ঠিত হবে?

মন্তব্য যোগ করুন

কবিতাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে লগইন করুন।

মন্তব্যসমূহ

এখানে এপর্যন্ত 0টি মন্তব্য এসেছে।