প্রথম জলের বৈধতা
- ফরিদুল ইসলাম ১৭-০৭-২০২৪

আগুন লাগানো কৃষ্ণচূড়ার নিচে গনগনে এক দুপুর বেলায়
মত্তহীন, তৃপ্তিহীন এক হৃদয় নিয়ে যাচ্ছিলাম।
বেশ কিছু দুরের পথ ছেড়ে আরো একটু দুরে-
মাঝপথে ক্ষিপ্র ধ্বনি, আগন্তুকের কোলাহল ছেড়ে
হৃদয় বাসনায় ছুটছিলাম
আমি ও আমার অর্ন্তনিহিত সত্তা।

হঠাতই তোর অরক্ষিত ধ্বনি,
সুরক্ষিত চেনা ডাক-
পিছু ফিরে তাকাতেই- তোর মুখনিসৃত
আবারো একশো করাত।

আমি সমাপ্তের পথে হাটতে চেয়েছিলাম,
নিরপরাধ, নিরুপায়ের আর একটি নাম।

অথচ তুমি দিলে আমায়
নির্লুপ্ততা, বেহায়াপনা
শৃঙ্খলা মুক্ত বেদনা জলের হাসি-

আমি তাই-
এ আমার কান্না নয়,
পেয়েছি যে জলের বৈধতা
আমি অশ্রু আনন্দে ভাসি।

মন্তব্য যোগ করুন

কবিতাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে লগইন করুন।

মন্তব্যসমূহ

এখানে এপর্যন্ত 1টি মন্তব্য এসেছে।

Sar57ker1981
২১-১১-২০২৩ ০৯:৩৯ মিঃ

বেশ রোমান্টিক

ফরিদুল ইসলাম
০২-১২-২০২৩ ১২:১৬ মিঃ

ধন্যবাদ। ভালোবাসা নিবেন