তোমাকে শেষ চাওয়া
- সামাউন ইসলাম সজীব ২০-০৪-২০২৪

ঝলমলে ইটের দালান-পাথর হৃদয়,
কোথাও কেউ নাই-কেউ নাই,
পুঁড়ে গেছে সব জীবনের আলো,
অন্ধকারেও খুঁজে দ্যাখো আলোর কি প্রয়োজন?

আমাকেও খুঁজো না তুমি,
অন্ধকারে খুঁজে ফেরো তোমার তুমি,
হারিয়ে ফেলে নিজেকে ভেবো না,
কোথাও কেউ নাই-কেউ নাই,
দাম্ভিক পুঁড়িয়ে ফেলে হয়ে যাও আলোর মশাল,
বুক চিতিয়ে বলে ফেলো ভালবাসি বিশাল।

হতভম্ব যতসব বন্দী হৃদয়,
ভেঙ্গে ফেলো যত্রতত্র ফন্দি নির্দয়,
মুষ্ঠি করে হাত,বাঁধো সব জঞ্জাল,
মুড়িয়ে দাও কালো অন্ধকার,
যা আছে প্রেমের হিংস্র রুদ্ধদ্বার।

কি অজস্র যন্ত্রনা,
কেউ দ্যাখে না -কেউ না,
হৃদয়ের সবটুকু ঝড় এলোমেলো করে,
বাড়িয়ে তুলে হৃদয়ে দীর্ঘশ্বাস,
এমনও তো হয় জীবন নাই-একটি বিশ্বাস।

হৃদয় খুলে দ্যাখো-দ্যাখো সমস্তটা জুড়ে,
একাকিত্ব আমাকে কতোটা কেড়েছে নীড়ে।
চেয়ে দ্যাখো আমায়-পলক ফেলবে না আর,
হারিয়ে যাবো যখন খুঁজবে আমায় তোমার দু'নয়ন।

দেয়ালে দেয়ালে দ্যাখো-শহরের সব দালানের তীরে,
"মুচে গেছে সে-সতেজ হাওয়ায় তোমাকে একা করে-
ফিরবে না সে-বুজে গেছে যে চোখের অমলিন অশ্রু ভীড়ে",
তুমিও কি চাও?
ভুলে যাবে সব স্মৃতির লিখন।

কতো কতো হৃদয় ছুটে যায় রাত্রিমাঝে,
অশ্রুজলে নিভে যায় প্রেমিক তার ঠিকানার নীড়ে,
প্রেমিকাও হারিয়ে যায় কতোশত স্মৃতির ভীড়ে,
কেউ জানে না-কেউ না-সবটুকু যে দুজন ঘিরে।

মন্তব্য যোগ করুন

কবিতাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে লগইন করুন।

মন্তব্যসমূহ

এখানে এপর্যন্ত 0টি মন্তব্য এসেছে।