তিনটি ছড়া
- বিচিত্র কুমার ২১-০৬-২০২৪

(০১)
কুরবানির গরু
- বিচিত্র কুমার

হাট থেকে আনলো দাদা
মস্ত বড় ষাঁড়,
তার গলায় ঝুলানো ছিলো
রঙিন ফুলের হার।

লাদুস লুদুস চেহারাটা
লালচে রঙের গরু,
শিং দুটি তার খাঁড়া
লেজটা তার সরু।

(০২)
কুরবানির গরু
-বিচিত্র কুমার

কিনবেন ভালো কথা কিনে নিয়ে যান,
তাই বলে করবেন এতো অপমান?
কেউ এসে দাঁত দেখে কেউ দেখে শিং
কেউ হেসে বলে গলাতে এটা কিসের রিং?

বড় বড় চোখ করে দেখে চোখ কান
চামড়া ধরে কেউ কেউ জোড়ে দেয় টান।
বলে বেটার দাম কত ফাঁকাতে ধরে আন
পান খায় দলবেঁধে তাড়াতাড়ি বাঁন।

পারিনা আর নিতে চাপ সবাই বড্ড জ্বালাই
মালিকেরা খুঁয়ে খুঁয়ে মস্ত হাতি বানাই।
গরু হয়ে জন্মেছি জানি না কী দোষে?
দালালেরা টান মারে গোপন অন্ডকোষে।

ছিঃ ছিঃ তাই বলে এতো অপমান,
কিনবেন ভালো কথা কিনে নিয়ে যান?

(০৩)
কুরবানির গরু চুরি
-বিচিত্র কুমার

আউলা চুলের বাউলা দাদা
ঘুরছে উড়ি উড়ি,
কালকে রাতে কুরবানি
তার হঠাৎ চুরি।

মাঠে খোঁজে ঘাটে খোঁজে
খোঁজে দেশান্তর,
কোথায় পাবে কোথায় পাবে
কাঁদে দাদার অন্তর।

বিশাল বড় তার গরুটা
কে করেছে চুরি,
গ্রামের ভিতর হইচই
বললো এসে বুড়ী?

মন্তব্য যোগ করুন

কবিতাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে লগইন করুন।

মন্তব্যসমূহ

এখানে এপর্যন্ত 1টি মন্তব্য এসেছে।

M2_mohi
১৪-০৫-২০২৪ ১০:৫২ মিঃ

মনোমুগ্ধকর