আজ ৭ আশ্বিন ১৪২৬, রবিবার

ঋষি
- এস জামান হুসাইন - খেলা ঘর

“বহু দিন পরে বহু ক্রোশ দূরে,
অরণ্য মাঝে ঝর্ণার ধারে,
হিমালয় পাহাড়ের পাদদেশে
গিয়েছিলাম আমি একা।”
“চক্ষু মুদিয়া, আসন পাতিয়া
খালি পায়ে, নগ্ন গায়ে বসিয়া
ধ্যানমগ্নরত এক ঋষির
হয়েছিল আমার দেখা।”

“কাছে গিয়ে আমি শুধাই তাহারে,
ধন আছে কি তোমার ভান্ডারে?
তাহা হইতে কি কিছু দিবে মোরে?
ঘুচাইব মোর অভাব!”
“কি যে বলিস এই সকাল বেলা?
জুটে ডাল ভাত মোটে দুই বেলা!
খালি হাতে ভিক্ষা চাস মোর কাছে।
এই বুঝি তোর স্বভাব!”

“দু’ হাত পিছিয়ে শুধাই আবার,
জ্ঞানের ভান্ড কী আছে বাবার?
বহু ব্যয় করে, বহু দেশ ঘুরে
আসিনু তোমার আসনে।”
“বকের ন্যায়, ষাট বছর ধরি
জ্ঞানের লাগিয়া তপস্যা করি
কিছুই হয়নি জমা ভান্ডারে,
কিযে দিব তোর বাসনে।”

“আছে কি তোমার কাছে উদারতা?
দিবে কি আমায় মহানুভবতা?
হৃদয় ছোঁয়ানো আলোর বন্যা
দূরে হঠাইতে আঁধার।”
“কোথায় সে উদারতা এইখানে?
আধাঁরী পোকায় ভরা সবখানে!
মহানুভবতার বড় অভাব!
হৃদয় - শূন্য পাথার!”

২৪ অক্টোবর, ২০১৮
লালমনিরহাট।

মন্তব্য যোগ করুন

কবিতাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে লগইন করুন।

মন্তব্যসমূহ