আজ ৪ আষাঢ় ১৪২৬, মঙ্গলবার

আজব ঢাকা
- হোসাইন মুহম্মদ কবির - রাজধানী ঢাকা

দুই চোঁখে আমার স্বপ্ন ছিল
রংতুলিতে আঁকা
বড় হোলে যাব আমি
রাজধানী ঢাকা

শুনেছি ঢাকায় কেউ এলে
কোন না কোন চাকরী ১টা মেলে
তবে বেঁচে থাকা বড় দায়
কত কথার চাবুক নিত্য পরে গায়
যে কস্ট করেনি
তাকে বোজানো বরই দায়

ঢাকায় নতুন এলে
ভুলে যায় অলি গলি
কারো বদলে যায় কথার বুলী
ঢাকায় নারী পুরুষ
নাই ভেদা বেদ
শার্ট প্রেন্ট সবাই পরে
ডিজিটাল মেয়েদের রূপ
আমাকে আকর্ষণ করে না
ওদের প্রতি প্রেম ভালবাসা
মায়া মমত্ববোধ জাগে না
তবে দেখতে লাগে ভেশ

জিয়া উদ্দান স্রতি শোধ
চিরিয়া খানা
যে জাই কিছু করে
কেউ করে না মানা
এটা কারো কাছে নয়তো সোনা
এ আমার নিজ চোখে দেখা
গুরে এলাম একলা একা

রমনা গ্যার্ডেন হাতির ঝিল
ছেলে মেয়ে কি যে মিল
না দেখলে যায়না বোঁজা
এ জেনো দেহের
অচেনা সুখ কে খোঁজা
মানুষের নিষ্ঠুরতা ও পাপ
দেখেও আমি দিব্যি চেয়ে থাকি
ঢাকায় নিত্য নতুন সেখা
শত চেস্টা করেও
বদলায়নি আমার বাগ্য রেখা

কত দিন হয়নি দেখা
গ্রামের সেই সবুজ খেলার মাঠ
দূর দুরের হাট
পুকুর বড়া মাছ
সবুজ শেমল গাছ
কেন যে এলাম ঢাকা
কোথাও নেই এত টুকু ফাকা
ইট পাথরে ঢাকা
অলিতে গলিতে ওরে সুধু টাকা
তবেঁ যায় না ধরে রাখা
ঢাকায় এলে অনেকেই
হয়ে যায় বড় একা

যে যার মতন ব্যস্ত কাজে
সবাই নিজের সার্থ খোঁজে
ভাল মন্দ যায়না বোজা
কথার বাজে
আবার কেউ পায়
ছলনা ময়ী রুপসি নারীর দেখা

এই সেই ঢাকা
যেখানে সব পাওয়া যায়
যদি থাকে সীমা হীন টাকা
তবু এই ঢাকা শহর
ভীষণ রুক্ষ মনে হয়
চাইনা থাকতে ঢাকা
চল্লাম গ্রামে একা
৭রংধনুতে আঁকা
এই আমাদের্ই আজব ঢাকা

মন্তব্য যোগ করুন

কবিতাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে লগইন করুন।

মন্তব্যসমূহ