আজ ২৯ অগ্রাহায়ণ ১৪২৫, বৃহস্পতিবার

তুমি ছাড়া এ জীবন অসহায়
- বিদায় বেলা - স্নিগ্ধতার পরশ

তুমার সাথে সম্পর্ক ঘরে ওঠার এতো বছর পর ও,
বুঝতে পারি নি তুমি কতটুকু মিশে আমার মাঝে,
আমি সত্যি বুঝতে পারিনি
তুমি ছাড়া যে এ জীবন অসহায়।

ভালোবাসলে হয়তো এমনি হয়!!
জীবনে সকল সুখ,দুঃখ হাসি,কান্না,আনন্দ সব কিছুই তারই আওতায় চলে যায়।
তুমায় বুকের পাঁজর এ এতোদিন রেখে ও
আমি সত্যি বুঝতে পারিনি
তুমি ছাড়া যে এ জীবন অসহায়।

তুমার চোখের দিকে তাকিয়ে,
কতো যে প্রহর কাটিয়েছি
হয়তো তার হিসাব নেই আমার কাছে,
কিন্তু তুমায় এতো দেখেছি যে,
তুমার রক্তমাখা জবাফুলের মতো
গালের ঢোল পরা থেকে শুরু করে,
ছোট্ট বেলার খেলার চলে মিষ্টি গালে
আচড়ে দাগ টি পর্যন্ত
বৃত্তের চাপ লেগে আছে আমার দু,টি
এতো কাছ থেকে হয়তো
পৃথিবীর কোন প্রেমিক যোগল দেখেনি তার
প্রিয়তমাকে।
তবুও বুঝতে পারিনি
তুমাকে একদিন না দেখলে
আমি অন্ধের চেয়েও অসহায়।

তুমার সাথে কথা বলে কতো যে রাত করেছি ভোর,
মুয়াজ্জিন এর আজান শুনে থমকে গেছি দু'জনে
তবু ও যেনো হয়নি কিছু বলা,
আমি তখনই বুঝতে পারিনি
তুমি ছাড়া সত্যি আমি অসহায় ।।

কাজের ব্যস্ততায় কথা বলতে পারিনি বলে
তুমার জারি খাওয়া,
কথা বলতে না পাড়ায় রাগান্বিত স্বর,
সরি সরি বলে
নিজেকে নির্দুষ প্রমাণিত করা।
তখনই সত্যি আমি বুঝতে পারিনি
তুমি ছাড়া এ জীবন অসহায়।

যখন তুমি পরিবর্তন নিজের মাঝে নিয়ে এলে,
ব্যস্ততায় ভরিয়ে নিলে
আমার পাশে থাকা সময়গুলো
জুটিয়ে নিলে নতুন কিছু বন্ধু।
তাদের ভিড়ে আমায় আর অনুভব হয় না।
আমার সাথে রাগ করতে হয় না।
আমাকে ও আর তুমি রেগে আছো
আতঙ্কে থাকতে হয় না।
কাজের শেষে বাসায় গিয়ে আর
সময়ের হিসাব গুলি দিতে না।
তখন ই সেই স্মৃতিগুলি হাতনাড়ায়
আয়নাতে নিজের প্রতিবিম্ব
চিৎকার করে শুধায়,
সে ছাড়া সত্যি তুই অসহায় ।।

মন্তব্য যোগ করুন

কবিতাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে লগইন করুন।

মন্তব্যসমূহ