আজ ৫ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬, মঙ্গলবার

উল্লাসে-সোল্লাসে
- মাহমুদুল মান্নান তারিফ - নির্বাচিত

(বিজয়দিবসের কবিতা)
উল্লাসে-সোল্লাসে
---------------------------------
মাহমুদুল মান্নান তারিফ

আজকে আমার বুকহাসেগো বিজয়সুখের উল্লাসে,
আজকে আমার চোখহাসেও হৃদয়সুখের সোল্লাসে।
বিজয়সুখের ঢোল বাজিয়ে
হাসতে নাচন ফুল সাজিয়ে
আটকাবে কে আমার হাসি খাক বিজয়ের গোল্লা সে।

ধমকে দিতে পাকহানাদার বীরের জাতি পারছিলাম,
নয় পরাজয় বাঙ্গালির জয় ময়দানে কী হারছিলাম?
উড়ছে নিশান বাংলাদেশে
পুড়ছে কিষাণ হামলা?কে সে?
মাতৃভূমি এই আমাদের হামলা ঠেকাই কাড়ছিলাম।

তোমরা কিরে করছিলে না! মানব খুনে শরীর স্নান!
জয় আমাদের পক্ষে ঠিকি গেলেও বহু সশির প্রাণ।
বীরকেশী বেশ বীর বাঙ্গালি
শোণিত স্নানে শির রাঙ্গালি!
রব সহায়ক যাদের কেউ কী মারতে পারে ভবির মান।

বুড়িগঙ্গা ভৈরব এবং নাফনদে বেশ কেশ লাশের,
তিরিশলক্ষ লাশের বোঝা কেমন বইলো দেশ ত্রাসের?
শুদ্ধে হৃদয় বৈরি তাড়াই
যুদ্ধে বিজয় তৈরি ছাড়াই
সফল হলাম সৎসাহসে দেশটা সবুজ নয় মাসের।

আমরা হাসলে দেশটা হাসে হাসলে স্বদেশ আমরাও,
পাঞ্জাবিদের দেখলে আজি তোলে নিতাম চামড়াও।
দেয় বলে দেয় সূক্ষ্ম বিজয়
যাও ভুলে যাও দুঃখ কী সয়!
অনেক সুখে আমরা আছি,পায়নি তারা আমড়াও।

বিজয়সুখের উল্লাসেগো বুকে খুশির জোর জোয়ার,
অশ্রূসিক্ত দু'চোখ ভেবে হৃদয়সুখের ঘোড়সওয়ার।
ডাক দিয়ে যায় বিজয় দুপুর
কাক নিয়ে যায় নিদ্রা কী দূর!
শহিদানের আত্মা বললো দিন হলো শেষ সর নোয়ার।

আত্মা বলে শহিদানের হও না গাজি হও না বের,
বুকফুলিয়ে মুক্তবাংলায় কও না কথা কও না শের।
বিজয়গানে মন ভরে দাও
বিজয়গীতি মন ভরে গাও
আঘাত এলে আবার দেশে হও না কেনো হও না বের?

রচনাঃ ১৬ ডিসেম্বর ২০১৬

মন্তব্য যোগ করুন

কবিতাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে লগইন করুন।

মন্তব্যসমূহ
মাহমুদুল মান্নান তারিফ
১৩-১২-২০১৮ ০৩:৫৫

কবিতাটি ষোলই ডিসেম্বরের বিজয়ের আনন্দকে উপভোগ করে।

মাহমুদুল মান্নান তারিফ
১৩-১২-২০১৮ ০৯:২১

বিজয়ের আনন্দ বয়ে যাক বাঙ্গালিদের ঘরে ঘরে।