আজ ৫ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬, মঙ্গলবার

কবিতাসমষ্টি তারিফ০৩
- মাহমুদুল মান্নান তারিফ - সোনালি কবিতা

মাহমুদুল মান্নান তারিফ৪০১৫ (১৫-২৪)
তারিখ২৬০৯২০১৬
প্যাঁচের জীবন প্যাঁচেই চলে!

সইতে ব্যথা - নেইবা পারি,
বইতে হবে - ব্যথাই ভারি,
ছিঁড়ছে খিদেই ভুঁড়ি-নাড়ি,
দু'পায়ার বিনষ্ট গাড়ি!

ক্ষুধা-জ্বালায়,মজ্জা গরম!
ডুব দিয়েছে,লজ্জা-শরম!
ক্ষোভ বেড়েছে,বুকে চরম!
ঝ্যাঁটার ঘা'টা ফাটা-নরম!

এক বেলা না,দুই বেলা না,
ভোজ্যভোজন তিন বেলা না,
দুই,তিন কিবা, চার দিনে না,
পাঁচে যোগ এক,ছয় গণনা?

নিভৃতে মন,নিজেই,বলে,
দুষ্টু লোকের,পড়ছো কলে!
নিজেই পড়ছো,নিজের গলে!
প্যাঁচের জীবন,প্যাঁচেই চলে!

তারিফ৪০১৬ তাং২৮০৯১৬
বিজয়মুক্তি কর্ দেমাগ

ধুকপুকানি সব দে বাদ
বিজয়মুক্তি কর্ দেমাগ
এবার নতুন স্বপ্ন দেখ্!
স্বদেশপ্রীতি কাব্য লেখ্।

পেছন ফেলে সামনা চা
দ্বেষ পিষিয়ে দেশ বাঁচা
দেশকে ভালোবেসে যা
শত্তুরে খুব জ্বলছে গা!

ঐক্যবেঁধে কর্ রে কাজ
উচ্চকণ্ঠে কর্ আওয়াজ
পড়্ রে শিরে বীরেরতাজ
ঝলকানি দেক শিরেরতাজ।

সোনার বাংলা তোল্ গড়ে
সোনার দেশকে ফুল করে
দে খুশিতে দোল ওরে
যাসনে পিছে ভুল করে।

হিংসা-দ্বেষের যতোই ভুল
দে বানিয়ে ততোই ফুল
সম্ভাবনার ভিড়ছে কুল
সামনে আরো জয় বিপুল।

তারিফ৪০১৭ তাং২৯০৯১৬
মিঠা-তিতা

কাটাদেহে লেগেযায় জোড়া
ফাটাগেহে দুঃখে শুধু ভরা
সুখপাখি দুঃখে আঁখি মরা
বুকখানা বালুচর খরা।

সেই কথা লাগে মনে দাগ!
যেই কথা তোলে মনে রাগ!
থামো বলি তুমি বুঝি বাঘ!
তারে বলি হাঁকি দিয়ে ভাগ!

মিঠাকথা মনে আসে দুখ,
তিতাকথা ভরে সুখে বুক!
ক্ষোভ বাড়ে দেখে তার মুখ,
লোভ সারে খাঁটি বিষপোক!

তারিফ৪০১৮ তাং২৯০৯১৬
দেইনা কি উপদেশ?

করিনাতো রাজনীতি
করি শুধু কাজনীতি
নই কোনো দলীয়,
নুনখাই আমি যার
গুণগাই আমি তার
দলে মত বলিও!

একদম ভুল কথা,
লবঙ্গ তিত যথা
বুকব্যথা অবশেষ,
ভুল কথা শোধরিয়ে,
তারে দেই গুজরিয়ে
দেইনা কি উপদেশ?

না হেঁটেছি ভুলপথে
চাচ্ছিতো ফুল হতে
ছড়াতেও সৌরভ,
ভালো চায় মানুষে
কালো চায় ফানুসে
মানুষেই গৌরব!

তারিফ৪০১৯ তাং০৩১০১৬
মানবপশু অস্ত্রধারী

আমরা জানি তোরা কারা
মানবপশু অস্ত্রধারী
কোন্ পাগলে দলিল দিচ্ছে
স্বর্গে যাবি মানুষ মারি?

আমরা যখন আল্লা'র পথে
আসতেও কই নবীর মতে,
যুবকদের দাও অস্ত্র হাতে
তোরা তখন অসৎ পথে।

আল্লাহ বলেন তাঁর জমিনে
সন্ত্রাস সৃষ্টি করবেনা,
তোরা বলছিস দ্বীন-কায়েমে
অস্ত্র হতে সরবেনা।

ধর্ম নিয়ে বাড়াবাড়ি
আল কুরআনে নিষিদ্ধ
আল্লাহ পাকের বাণীর চেয়ে
তোদের কথা কি িসদ্ধ?

তাইতো দেশে জঙ্গি নিধন
তোদের পাশে মরণদূত,
ক্রমান্বয়ে মরবে সবাই
নরকবাসী দানব ভূত।

তারিফ৪০২০ তাং০৪১০১৬
সাজতে দেবো সাজন

সখি তোরে দেবো কেনে শিউলিফুলের মালা
তারই সাথে দেবো দুখান খাঁটি সোনার বালা।

পরবে মালা ঝুলবে গলে হাসবে রে তুই সুখে,
তোরই সুখে আমার বুকের ক্লেষ্ট দেবে রুখে।

দুখান বালা পরবে তোরই শুভ্র-কোমল হাতে
ঝলক দেবে বালা দুখান আঁধার-ঘন রাতে।

সখি তোরেই দেবো কেনে ধুতরাফুলের দুল
স্বর্ণলতার বেণি দেবো বাঁধবে খোঁপার চুল।

সাজবে সখি ইচ্ছামতো সাজতে দেবো সাজন
মনের ঘরে রাখবে তখন স্নেহের অটুট বাঁধন!

তারিফ৪০২১ তাং০৫১০১৬
লিমেরিক

মানবরে তুই সাজলে দানব কেমন করে বুকচাপি,
নিরপরাধ মেয়েটাকে কুপিয়েছিস তুই পাপি।
তুইতো এখন বন্দি বেশ!
কষ্টকে তুই ভালো বেস!
জানিনে তুই কেমন প্রেমিক,তোর প্রেমে সে যায় কেঁপি!

তারিফ৪০২২ তাং০৭১০১৬
প্রিয়ে তুই কি নিবি!

প্রিয়ে তোরে পরাণভরে বাসি অনেক ভালো
ভালোবাসা কাব্যগানে জ্বালবো মনে আলো
হৃদয় কাড়া রক্তকমল - রক্তকাঞ্চন ফুলে
অঙ্গটা তোর রঙ্গে দেবো চম্পা দেবো চুলে।

বেলীফুলের মালা তোরই কণ্ঠে দেবো পেঁচে
মনের মতো পুষ্পটা কী পারবি নিতে বেছে?
তুই দেখেছিস স্বর্ণচাঁপা - কৃষ্ণচূড়া লাল?
গন্ধরাজের গন্ধ শুঁকে দিবি নাতো ফাল!

গাদাফুলে ঘরসাজাবো তোর সাজাবো পা
নাম অজানা কত্তফুলে তোর সাজাবো গা
তারাফুলের নূপুর দেবো শিউলিফুলে মালা
ধুতরাফুলেই দুল বানাবো স্বর্ণলতায় বালা।

আদরকরে গোলাপ দেবো মৃদু হেসে নিবি!
প্রিয়ে তুই কি নিবি! নিলে,ভালোবাসা দিবি?

তারিফ৪০২৩ তাং০৮১০১৬
কবিগণ প্রিয়জন

রাজনীতি ফাঁদে পড়ে কবিগণ নোংরা,
সবকবি নয় জানি কতিপয় গোমরা।
দলাদলি করে মরে অর্থের কাঙাল,
একে অন্যকে চ্যাটে ধিক দেয় বাঙাল।

বাঙালি কবিদের মন চাই শুদ্ধ,
নিজ মতে নয় বলে কেনো হও ক্ষুব্ধ?
লাইক কমেন্ট নাও দিও করো মুখ বন্ধ,
চ্যাটে কেনো ধিক দাও কেনো এই দ্বন্দ্ব?

কবিগণ হতে হবে প্রিয়জন সকলের
কবিদের মন হবে সবমন দখলের।

Mahmudul Mannan Tarif3
TarifVolume3ef 01715357517

মন্তব্য যোগ করুন

কবিতাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে লগইন করুন।

মন্তব্যসমূহ