আজ ৩ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬, রবিবার

ভুখাগীতি গেয়ো
- মাহমুদুল মান্নান তারিফ - সোনালি কবিতা

কুয়াশাচ্ছন্ন সবুজ-মাঠ অভেদ্য সূর্যের প্রভা,
শৈত্যপ্রবাহে দন্তের ঘষা থরোথর করা বুক।
করণীয় নিয়ে পরামর্শ চাষী-শ্রমিকের সভা,
শস্যের মাঠে দৃষ্টির শোভা দূরীভূত হয় ভুখ।
ঠাণ্ডার চাপ কৃষক গায়ে কৃষাণীর করে জবা,
স্ত্রীর নিকট স্বামী বরেণ্য দরজায় খাঁড়া সুখ।
অলস যারা শরীর গলা হারিয়েছ তারা লভা,
শীতের ঋতু করেছে দান অলস কৃষাণে দুখ।

আলস্যদোষে ঘর ভরেনা আলসে চাষীর ঘর,
অসীম কষ্ট ক্লেষ্ট বয়েছে উপোষের চেয়ে শ্রেয়।
শিশির ভেজা গা শুকে নেয় ঊষার রবি প্রখর,
অলসগতি যাদের মাঝে নিজেদের করে হেয়।
চাষীর আঁচা প্রবলশীতে চাষীকে রাখে অনড়,
চেতনা বলে অসচেতনে ভুখাগীতি সদা গেয়ো।

রচনাঃ ২৯/১২/২০১৬

মন্তব্য যোগ করুন

কবিতাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে লগইন করুন।

মন্তব্যসমূহ