আজ ১০ ভাদ্র ১৪২৬, সোমবার

অজয়ের গান
- লক্ষ্মণ ভাণ্ডারী - আমার কবিতা

অজয়ের গান
লক্ষ্মণ ভাণ্ডারী


গাহি অজয়ের গান।
অজয়ের বাঁকে আম্র-তরুশাখে কোকিলের কুহুতান।


অজয়ের ঘাটে প্রভাতের রবি প্রতিদিন দেখি উঠে,
মাথায় পসরা লয়ে যাত্রীরা খেয়া-ঘাটে আসে ছুটে।
কত গরুগাড়ি আসে সারিসারি নদীঘাটে এসে থামে,
ঘোমটা মাথায় নীল বেনারসী গায় নববধূ ঘাটে নামে।


বলাকার দল নদীর চরে আসে পাখা মেলে উড়ে উড়ে,
শঙ্খচিল উড়ে আকাশের বুকে বাজে বাঁশি মিঠে সুরে।
শাল পিয়ালের বনে বনে ঐ সাঁওতালীরা বাজায় মাদল,
নদীর ঘাটের কাছে বটগাছ আছে সুশীতল নদীর জল।


রাঙা চেলি পরা, গাঁয়ের বধূরা জল নিতে আসে ঘাটে,
পড়ে আসে বেলা দিবসের খেলা সূর্য বসে শেষে পাটে।
আঁধার ঘনায় অজয় কিনারায় নদী বয়ে যায় কল কল,
চাঁদ তারা হাসে রাতের আকাশে জোছনায় নাচে জল।


গাহি অজয়ের গান,
অজয়ের ঘাটে, মৌন রাতি কাটে, দিবস হলে অবসান।

মন্তব্য যোগ করুন

কবিতাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে লগইন করুন।

মন্তব্যসমূহ