আজ ২৮ কার্তিক ১৪২৬, বুধবার

অর্গানিক প্রেমিক
- আবরার আকিব

আমি হয়তো প্রেমিক হতে পারিনি
প্রেমিক হলে টাকাভর্তি মানিব্যাগ লাগে
মোবাইল এ হাজার খানেক ব্যালেন্স লাগে।
একটা দামী ডস্লার লাগে
নামীদামী মোটরসাইকেল লাগে।
কীংবা শখের গিটার লাগে।
ভীষণ আনারী মানুষ আমি।
নিজের বলতে কিছু নাই।
আছে একখানা ফাকা মানিব্যাগ।
আর আছে পকেটভর্তি শুন্যতা আর হতাশা।
প্রেমিক হতে কী আছে আমার!
তবু হঠাৎ করে আমার জীবনে প্রেমিকা আসলো
আমায় প্রেমিক হওয়ার স্বপ্ন দেখালো
সাদা - কালো রং ছেড়ে রঙিন জগৎ এ নিয়ে আসলো।
কবিতা আর চিঠি ছাড়া দেবার মতন কিছু ছিলনা আমার
ম্যাসেঞ্জারে ফ্রীতে কথা বলতাম।
ভাগ্যিস ওয়াইফাইটা ছিল।
নয়তো কী আর ঘন্টার পর ঘন্টা পারতাম বলতে কথা।
ডিজিটাল যুগের অর্গানিক এক প্রেমিক আমি।
ডিজিটাল ছেড়ে অর্গানিক প্রেমের চাষাবাদ করি।
চিঠি লিখি, কবিতা লিখি
আজকালকার যুগে কী এইসব চলে নাকী!
বান্ধবীদের কাছে এসব বললে
বিদ্রুপের সুরে হয়তো বলবে
' এই তুই কাকে পছন্দ করেছিস
প্রেমিক হওয়ার কী কোন যোগ্যতা আছে নাকী!
এই যুগে এইসব!
এমন মেয়ে এমন একটা ছেলের প্রেমে পড়বে ভাব যায়!
আহা বান্ধবীদের কথা শুনে লজ্জায় হ্যাট হবে
তারাতারী করে ইস্যু খুঁজে অপমান করবে আমায়।
কৌশলে 'হিরো আলম' উপাধী দিয়ে অযোগ্যতার প্রমান করবে।
তারপর আমার প্রেম কে ছুড়ে ফেলে দিবে ডাস্টবিনে!
অথচ কোনদিন জানতেই চাইবেনা
এ ভাঙাচোড়া চেহাড়ার অযোগ্য প্রেমিক
এক পিরামিড সমান ভালবাসা নিয়ে তোমার অপেক্ষা করে।
নীরবে চোখের জল ব্যর্থতায় ধিক্কার দেয় নিজেকে।
প্রিয়তমা, সব ঝুট হ্যায়!
মোহাব্বাত, পেয়ার সব ঝুট হ্যায়!
নিজেকে নর্দমার কীট মনে হয়!
অসভ্য, বর্বর , অন্ধ প্রেমিক মনে হয়।
আমার হাজারো মিথ্যার মাঝে একটা সত্য লুকিয়ে ছিল
তা কী তুমি তুমি জানতে চাইবেনা প্রিয়তমা!
আমি তোমার থেকে বেশী কাউকে কোনদিন ভালবাসিনি
আদৌ পারবো কীনা জানিনা!
যদি ভালবাসো বুক পেতে ভালবাসা নিবো।
তোমার ভালবাসে ছুয়ে দিয়ে অঙ্গার করুক আমায়।
নিজের সমস্ত গ্লানি, অচেতনতা, অহমিকা
ধুয়ে মুছে দাও তোমার ভালবাসা দিয়ে।
তোমার ভালবাসার অধিকার হারানোর আগেই যেন মৃত্যু হয় আমার।
প্রিয়তমা ভালবাসি, ভালবাসি, ভালবাসি।

মন্তব্য যোগ করুন

কবিতাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে লগইন করুন।

মন্তব্যসমূহ