আজ ২ আশ্বিন ১৪২৬, মঙ্গলবার

আলোছায়া
- Chowdhury fahad

ধর ঠিক সন্ধ্যায়
হঠাৎ করে তোমার খুব চিরচেনা মুখখানা ভেসে উঠলো তোমার চোখে
কি করবে তুমি শুনিতো?
তাকে এক পলক দেখার জন্য তুমি পাগল হয়ে যাবে
তার হাঁসিটা দেখার জন্য তোমার মন উদগ্রীব হয়ে থাকবে
বার বার শুধু একটা জিনিষ ই মাথায় আসবে
তাকে আমার দেখা লাগবে
না হলে যে আমি শান্তি পাচ্ছিনা
এই যে তোমার প্রচন্ড ইচ্ছাটা প্রকাশ করে তাকে তুমি কতোটা ভালোবাসো তার গভীরতা
হয়তো সে তোমার এই ছোটোখাটো বায়না গুলোকে ঠিক পাত্তা দিবেনা
এগুলোকে তোমার পাগলি ই ধরে নেবে
একটু হাসঁবে বলবে এসব পাগলামো এর কয়েক বছর ঠিকি পাল্টাবে
তুমিও একটু বড় হবে
পড়াশোনাটাও ততদিনে পিছিয়ে থাকবেনা নিশ্চয়
তুমিও জীবনের সোনার হরিণ নামক "চাকরির" পিছনে ছুটতে থাকবে
কিন্তু সোনার হরিণ কি আর এত্তো সহযে তোমার কাছে ধরা দিবে?
দিবেনা খুব সহযে
আর ততদিনে তোমার প্রিয়তমা যে তোমার এসব পাগলামি মাথায় নিতোনা কখোনো ঠিক মতো
সেও এসব মিস করতে থাকবে
কেন যে তুমি এমন পাগলামি করনা
ছোট্ট ছোট্ট আবদারগুলো কেন করনা

হুট করে কল দিয়ে বারান্দায় ডাকা
বা তোমাকে দেখতে খুব ইচ্ছে করছে ভিডিও কল এ আসবা একটু?

এই জিনিষগুলোকে সে মিস করবে
এবং খুব প্রচন্ড পরিমানে মিস করবে
সে সবকিছুর বিনিময়ে একটা জিনিষ ই চাইবে তোমার কাছে
যেন আগের মতো হয়ে যাও তার কাছে
অনেকগুলো আবদার করো তার কাছে
সে তোমার সকল আবদার মেটাবে।

বৃষ্টিতে ভিজতে যাওয়া
একসাথে রাস্তায় হাঁটাহাঁটি
বা ফুসকা খাওয়া

মন্তব্য যোগ করুন

কবিতাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে লগইন করুন।

মন্তব্যসমূহ