আজ ২১ চৈত্র ১৪২৬, রবিবার

কবিদের প্রতি
- এস আই তানভী

.
#এক.
আমি তো কবিতা লিখতে পারি না- তুমি,
তোমরা এবিষয়ে জগদ্বিখ্যাত; কত শত
নামকরা পত্রিকায় ছাপা হয় তোমাদের লিখা,
কবিতা-গল্প-কল্পকাহিনী, আর আমার বেলায়!
সম্পাদক মহোদয় জানায়- "মানসম্মত
লিখা হতে হবে যে, আরো ভালো লিখুন'।

#দুই.
হাহাহা, ভালো লিখতে চাইলে
ভালোসব পড়া দরকার; নয় কি?
তোমাদের মানসম্মত কবিতাগুলো পড়ি;
আশ্চর্য হয়ে যাই, বারবার থেকে বারবার।

#তিন.
কী ঐশ্বরিক কল্পনাশক্তি তোমাদের!
শুধু সুখের ছোঁয়ায় আঁকো শব্দ মালা যত।
তোমাদের মগজের কেন্দ্র নারীতে জমজমাট,
নারীকে সাজাতে পারো অনিন্দ্য সুন্দরী করে
আবার নগ্নতার আলতাও মাখাতে পারো, খুব।
অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ, বেশ-ভুষা আর প্রেমলীলায়
অকালে গর্ভবতী করে রেখেছো কবিতার আবাসস্থল।

#চার.
ভুখামিছিল ঘরে ঘরে, শিশুরা কারখানায় মরে
বেকারত্ব হামাগুড়ি ছেড়ে দৌড় শুরু করেছে,
হাসপাতালের বারান্দায় বিনে চিকিৎসায়
রোজ কতজন মরে! ধর্ষণের দায় চুকাতে
অথবা যৌতুকের ঋণ পরিশোধে অনেকে
রশ্মিতে ঝুলে; আহারে জীবন!
বৈধ কি অবৈধ বেওয়ারিশ নবজাতক অহরহ
ছোট বড় ঝোপঝাড়ে, ডাস্টবিনে; বিড়াল
কুকুরের মুখরোচক খাবার!
আবার কুকুর বিড়ালের মুখ থেকেও
মানুষই করে খাবার ছিনতাই, আহারে জীবন!

#পাঁচ.
ঘর নেই, বাড়ি নেই, নেই বালিশ তোষক
পথেই খাটে, পথেই খায়, পথের ধারে
গাছের তলে মানুষও ঘুমায় পশুর সাথে!
তবুও; খেটেখুটে খাওয়া বেঁচে থাকা মানুষেরা
আজন্ম দাসত্বের শৃঙ্খলে; বাহু পেশিতন্ত্রে
বোবা হয়ে বেঁচে আছে মানুষ- কবি,
তোমাদের কবিতায় জীবন্ত হোক এবার
এই সব ছাইপাঁশ হাজার করুণ কাহিনী।

#ছয়.
সাত মহলায় বেহিসাবি রঙিন সুখ;
নেশার মোহনায় হারিয়ে যায় আদরের সন্তান,
রাজনীতিও বহু প্রাণ নিভিয়ে দিচ্ছে অহেতুক।
আবার অশ্লীল জগতটাও বেজায় সরগম,
সুশিক্ষিত সন্তানের পাপের বোঝা বইতে গিয়ে
ভেঙে পড়ে বৃদ্ধাশ্রম! আহা সমাজ,
তোর রীতিনীতিকে কালো সালাম।।

#সাত.
কবি, তোমাদের লিখনিতে এবার
সমাজের বাস্তবতার নিদারুণ চিত্র, সুখ-দুঃখ
হাসি-কান্না, ভালো-মন্দ কিংবা ন্যায়-অন্যায়
সব কিছুর ঠাঁই হোক, তোমাদের লিখনি
বাস্তবতা প্রকাশে হোক প্রাণবন্ত সোনালী চাঁদ,
প্রতিবাদের তাজা ভাষা, অনুপ্রেরণার স্তম্ভ।
কবি, আশার ভেলা ভাসাও সর্বস্তরের মানুষের জন্য।
-------------------
২০/০৩/১৯ইং

মন্তব্য যোগ করুন

কবিতাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে লগইন করুন।

মন্তব্যসমূহ
এস আই তানভী
২০-০৩-২০২০ ২১:৫৯

বিশ্ব কবিতা দিবসের কবিতা