আজ ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, শুক্রবার

তাসের বয়ানে- (আমাদের পরিবার)
- এস আই তানভী

.
দাদুর নাম খয়রুল
সে আদরের এক বুলবুল,
দাদী আমার কমলা
তার পেটে গল্পের টপলা।।

শাপলা বেটির রাগ খুব
তার সামনে সবাই চুপ,
পুতুল জামাই সাদাসিধা
ধীরে ধীরে বলে কথা।।

শাপলা বেটির মারু বেটি
অনেক চুলে মাথার ঝুটি,
দেখতে কিন্তু গাল ফুলি
আমার সাথে চুলাচুলি।।

শাপলা বেটির আরেক বেটি
মিম আপুরও ঝাউলা ঝুটি,
খেলা আর মারামারি
চলি হাত ধরা ধরি।।

আঁখি বেটির লম্বা জিহ্বা
ভীষণ চেচায়- ওরে বাবা!
মাড়েয়ায় তার শ্বশুড়বাড়ি
তার একটা মাত্র শ্বাশুড়ি,
শফি জামাই ভোলাভালা
গায়ের রং নয় যে কালা।।

একটা চাচ্চু রাব্বি নাম
ঢাকায় করে চাকরি/ কাম,
বাড়িত আসলে আমার জন্য
আনে অনেক খেলনা পণ্য।।

একটা চাচী, নাম বাবলী
হাসলে যেনো হয় পাগলী,
শ্বশুরবাড়ি এসেও পড়ে বই
এমন লক্ষ্মী চাচী পাবো কই।।

হাসীব আমার ছোট্ট ভাই
তার দুষ্টুমিতে জুড়ি নাই,
তাস' বলে ডাকে আমায়
দুই গালেতে চুম্মু খায়।
আধো আধো কথা বলে,
আঙুল ধরে হেঁটে চলে।।

এবার বলি আম্মুর কথা
রাগে ফুলে যায় যে মাথা,
কথায় কথায় লাঠি ধরে
পারলে আমায় ভর্তা করে।
আম্মুর নাম মোহনা
বায়না কোন চলেনা,
রুটিন মাফিক চলতে হয়
নইলে মা'র খেতে হয়।।

আব্বু আমায় মারে না
বায়না আমার ফেলে না,
হাসতে খেলতে বই পড়ায়
ছুটির দিনে নিয়ে বেড়ায়।।
তার মা যে নেই এই দুনিয়ায়
সে ভীষণ দুঃখী সেই বেদনায়,
মা বলে আমায় ডাকে
বুকের মাঝে আগলে রাখে।।

দুখের মাঝেও আব্বু হাসে
সব্বাইকে ভালোও বাসে,
রাগ করলেও মাঝে মাঝে
আদর করে ডেকে কাছে।।

আব্বুর নামটা বলবো কি
সবাই জেনো ভাই,
এলাকাতে তানভী নামে
চিনে যে সব্বাই।।

আরো একটা বড় আম্মু
বাড়িতে আছে,
আমার দাদুর চার নাম্বার
মা যে সে।
আছিয়া বিবি নাম তার
নিজে নিজে খেটেখুটে খায়।
শরীরে বয়সের ভার,
তবু চলে না কারো দয়ায়।।

পরিবারে আছে যারা
সবার কথা বললাম,
সবাই কিন্তু করবেন দোয়া
এটাও বলে রাখলাম।।
------------------
০৩/০৪/১৯ইং

মন্তব্য যোগ করুন

কবিতাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে লগইন করুন।

মন্তব্যসমূহ
এস আই তানভী
০৯-০৪-২০২০ ০২:৫০

তাস' আমার মেয়ে, আমাদের পরিবারের প্রথম সন্তান। তার মুখের কথাগুলো সাজিয়ে এই কবিতা। সবাই তার জন্য দোয়া করবেন।

দজিয়েব
০৯-০৪-২০২০ ১৭:৪৬

আপনার মেয়ে সুখী হোক জীবনে। আপনারাও সুখী হোন এই আশা করি।