আজ ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, সোমবার

অপেক্ষমাণ
- এস আই তানভী

.
অনেক বেলা পর্যন্ত অলসের মতো রোজ পরে থাকি
বিছানায়, জ্বলন্ত কণ্ঠে বাবা বোনটিকে বলে- (পাখি)
'দেখতো নবাবের বাচ্চার ঘুম ভাঙলো কি না?'
মায়াময়ী মা বাঘিনী কণ্ঠে করে ঘোষণা -
'যার দু টাকা রোজগারের ক্ষমতা নেই,
যুবরাজ স্টাইলে তার ঠাঁই এ বাড়িতে নেই।'
আরো অনেক কথা প্রতিদিন নিরবে শুনি
চাওয়া পাওয়ার হিসেব ভুল করে গুনি,
কেউ বাকী থাকে না, সবাই নানান কথা বলে
গোপনে বুকে সাগরের ঢেউ তুলি চোখের জলে।

অর্থশূন্য পকেট নিয়ে নিত্যদিন পথ চলা
নিজেকে সান্ত্বনা দিতে নিজের সাথেই কথা বলা-
'একদিন এ শনি দশা কেটে যাবেই,
আজ যারা আমাকে করছে হেলা, কাছে আসবেই,
নম্র-ভদ্র সুরে বলবে- 'সরি'।
তাই ধেয়ে আসা সব অপবাদ- না করে প্রতিবাদ
শুধু নিরবে অশ্রু ঝরাই, আজ যত আঘাত
আসে বুকে আমাকে ব্যথা দিতে-
পরম আত্মীয় ভেবে গ্রহণ করি মাথা পেতে।।

কোন একদিন দিবো সব আঘাতের শানিত জবাব,
দাঁড়িয়ে রেখেছে আমাকে- সেই অনাগত ভবিষ্যৎ,
তাই, ব্যথার ধূলো কণা দিয়ে মনের গভীরে
লিখি রক্তাভ ইতিহাস সবার অগোচরে।।
------------------------
১৬/০৩/০৮
বোদা, পঞ্চগড়।
ডায়েরি থেকে

মন্তব্য যোগ করুন

কবিতাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে লগইন করুন।

মন্তব্যসমূহ
এস আই তানভী
১৬-০৪-২০২০ ২২:৪২

জীবনের অধ্যায়টা খুব কঠিন