আজ ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭, বুধবার

নদীজল সুশীতল
- লক্ষ্মণ ভাণ্ডারী - আমার কবিতা

নদীজল সুশীতল
- লক্ষ্মণ ভাণ্ডারী

নদীজল সুশীতল মাঝি নৌকা বায়,
বৈঠা ধরে মাঝিভাই ভাটিয়ালী গায়।
অজয়ের নদীচরে সোনা রোদ ঝরে,
গাছে গাছে পাখি সব কলরব করে।


বধূরা নাইতে আসে অজয়ের জলে,
কলসীতে জল নিয়ে রাঙাপথে চলে।
শাল পিয়ালের বন, নদী থেকে দূরে,
মাদলের তালে বাঁশি বাজে মিঠাসুরে।


নদীচরে আসে উড়ে শালিকের ঝাঁক,
সারাদিন কিচিমিচি করে হাঁক ডাক।
ধবল বলাকা আসে, বসে নদী ঘাটে,
নদীতটে পড়ে বেলা সূর্য বসে পাটে।


সাঁঝের আঁধার নামে নদী কিনারায়,
পরে দেখি চাঁদ উঠে আকাশের গায়।
কল কল নদী জল বয় সারা রাত,
পূবে রবি দেয় উঁকি হয় সুপ্রভাত।

মন্তব্য যোগ করুন

কবিতাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে লগইন করুন।

মন্তব্যসমূহ