আজ ৩ আশ্বিন ১৪২৬, বুধবার

একাদশীর চান
- এ কে সরকার শাওন - নিরব কথপোকথন

আমিও তো
পা ভিজিয়েছিলাম
বড়াল নদীর জলে,
লাল পদ্ম তুলেছিলাম
চিনিডাঙ্গার বিলে;
শুধু তাঁকে দেব বলে!
মনে বড় আশা ছিল
তাঁর সাথে হয় যদি দেখা,
কোন না কোন ছলে!
মরা মনে প্লাবন বইবে
চৈত্রের খরা ফেলে!

পদ্মার পাড়ে বালির বাঁধে
আশার গুড়ে বালি !
শাহ মখদুমের সবুজ মাঠে
ইদুরে কপালই খালি!

আগদীঘার দীঘির তলে
জল মেপেছি বিফল;
বাঘার চরে উৎসব পার্কে
সময় ছিল খল!

শহরতলী ফুলবাগানে
ফুল কুড়ানোর নিষ্ফল !
বঙ্গোজ্জ্বলের অতল জলে
পাইনি খুঁজে তল!

বিল শাহের বাঁকে বাঁকে
ভাসিয়েছিলাম তরী!
জলের তলও ছল করেছে
পাইনি খুঁজে কড়ি!

সাইনপুকুরের শেষ বিকালটা
ছিলো অরণ্যের রোদন!
শূণ্যের মাঝে উড়ছি তবুও
হয়নি আমার বোধন!

মালঞ্চীতে ফুল শুকালো
দয়ারামপুর নিঃষ্ঠুর নির্দয়!
আবদুলপুর রেল জাংশনে
প্রতীক্ষার হলো না জয়!

খুঁজে খুঁজে নাকাল হলাম
বিশাল চলন বিলে!
হাজার জনের মাঝে
তাঁকে পাইনি পাটুলে!

অবশেষে মনের ঘরে
পেলাম একাদশীর চান;
চিরদিন একই রূপে,
অব্যয় অক্ষয় অম্লান!


শাওনাজ, ঢাকা!
০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯

মন্তব্য যোগ করুন

কবিতাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে লগইন করুন।

মন্তব্যসমূহ