আজ ২০ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯, রবিবার

অবশেষে হেসে উঠে সে
- সাদমান সাকিল

দৃষ্টিতে বিস্ময় নিয়ে কেউ একজনের নীরব অনুসরণ-
আমাকে, হ্যাঁ আমাকেই তাড়িয়ে বেড়াচ্ছে।
সেদিন বিশাল দেহের সবুজ মাঠের কোলে বসে
তুমি- হ্যাঁ তুমিই আমার কবিতা শুনলে।
কবিতাটা আহামরি কিছু ছিল না-
আমিও কোনদিন আহামরি কিছু নই,
আমি শুধু মনের কথাগুলো বমি করি।
আমি যখন থেকে প্রেমের সংঙ্গা শিখতে শুরু করেছি-
তখন থেকে প্রেম মানে বুঝি অবুঝের বিদ্রোহ,
গোলাপের শক্ত কাঁটা,
প্রিয়তমার হাতের লম্বা লম্বা নখ।
স্মৃতির ঘূর্ণাবর্তে পড়ে নিস্পাপ ছেলে নিকোটিন গিলে-
রক্তে রক্তে মিশে যায় পাপী ঘাতক।
আমি পাগলামি দেখেছি-
আমি প্রেম হাতে প্রেমিকার পাগলামি দেখেছি।
আমি দেখেছি গল্প করতে করতে-
কথা হারিয়ে ফেলা প্রেমিকযুগল-
অবশেষে তাদের নীরবতা ভাঙে-
তাদের কেউ একজন জিজ্ঞেস করে-
তোমাদের বাড়ির বিড়ালছানাটি ভাল আছে?
ঠিক মত খাওয়া দাওয়া করে তো?
অবশেষে হেসে উঠে সে! হাসতেই থাকে...
-----------------------
সাহিত্য সম্পাদক, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রথম আলো বন্ধুসভা।
সাহিত্য সম্পাদক, গ্লোবালপোস্ট২৪ডটকম।

মন্তব্য যোগ করুন

কবিতাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে লগইন করুন।

মন্তব্যসমূহ