আজ ৩ কার্তিক ১৪২৬, শুক্রবার

সত্য প্রকাশ-ই কলমের ধর্ম
- এস আই তানভী

উনি এখন অসুস্থ, মৃত্যুর প্রহর গোণা এক যাত্রী।
"প্রবীণ রাজনৈতিক, জন-দরদী, মেহনতি মানুষের
সংগ্রামী তেজস্বী নেতা, বিপদগ্রস্ত মানুষের পাশে সর্বদা
যাকে পাওয়া যায় না ডাকতেই, শতবর্ষী ন্যায়- নীতিবাদী"-
এইসব শব্দ প্রয়োগ করে একখানা কবিতা লিখার কথা,
অনুরোধকারী এক প্রিয় বন্ধু; কথা দিলাম- লিখবো।

"হ্যা, ছিলাম তার সাথে, বাক্যহীন ভাবে কাটিয়েছি
কয়েক বছর, অনেক কিছু দেখেছি নিরব অশ্রুজলে,
কাজের মেয়েটাকে পিটিয়ে আনন্দ পেত, পকেট থেকে
কোন দিন একটা সিকি বের করতে দেখিনি-
পথ ভিখারি, অসহায়েরা অভিশাপ দিতো হাজার বার,
রিলিফ পৌছে দিত দশ ঘরে সশরীরে, তার পোষ্য
ক্যামেরা ছুটতো পিছে পিছে, বাকী পঞ্চাশ ঘরের মাল?
-বুঝে নিয়েন। ভোট এলে ঘরে ঘরে কাঁদা-মাটি, হাঁটু জল
ডিঙ্গিয়ে বুক মেলাতো, হাত মেলাতো আমজনতার সাথে,
হাজার শিশুর গাল ভরে যেত তার চুমুতে- সে জনদরদী।

স্বার্থটা হাসিল হলেই- কে পায় তার নাগাল? ঘুম ভাংগে
বেলা বারোটা, চেম্বারে বসে তিনটায়, ধবধবে পোশাক পরা
মানুষেরা কথা বলে প্রাণ খুলে, হাসা-হাসি; আর ব্যথাতুর
হৃদয় ছটফট করে অশ্রুজলে আর্জিটা পেশ করার জন্য-
'সময় নেই, কালকে এসো, জরুরী এক কাজ আছে'।
ব্যর্থমনোরথ; ফিরে যায় সবাই- মনে মনে ছুড়ে অভিশাপ।
বিরোধীদের পেটাতে ছিলো নিজস্ব গুটিকয়েক লাঠিয়াল,
টাকা ঢালতো, থানাপুলিশ সামলাতো, জনতার মঞ্চে
কাঁদতে পারতো সুনিপুণ, আরো কত অভিনয়- সহেছি নিরবে,
এমনি করেইতো আবার ভোট আসে"--- হায় সর্বনাশ!

রাত জেগে শত কাগজ ছিড়ে কী এসব লিখলাম?
জানি না, ভাগ্যে কি আছে- আমার কোন দোষ নেই
সাদা কাগজের বুকে সত্যের চাষ করা-ই কলমের ধর্ম,
বন্ধু আমি বড্ড দু:খিত, দুজনের দেখায় ঢেড় পার্থক্য
কলমটা বশ মানলো না, তোর শব্দগুলো বেমানান তার বেলায়।
------------------
২০/০৮/১৭ইং

মন্তব্য যোগ করুন

কবিতাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে লগইন করুন।

মন্তব্যসমূহ
এস আই তানভী
০৮-০৯-২০১৯ ০৪:০৩

কলম