আজ ১৪ আষাঢ় ১৪২৯, মঙ্গলবার

সুতোয় টান পড়ে
- মিটু সর্দার

যদি কখনো চলে যাও --
তাহলে বুঝবো আমার ভালোবাসা কমজোর ছিলো
তোমাকে আটকিয়ে রাখার মতো ভালো -
আমার হৃদয় ভাসতে পারেনি।
তুমি উন্মুক্ত জীবন চাও -
শঙ্খচিলের মতো ডানা মেলে উড়তে চাও --
বুকের খাঁচার পাঁজরে বন্দী থাকতে চাওনা।
একবার খাঁচা মুক্ত হ'য়ে দ্যাখো --
কতোটা ভয়ঙ্কর এ-ই পৃথিবী --
পদেপদে ওঁতপাতা শকুনির দল
তীক্ষ্ণ নখের আঁচড়ে রক্তাক্ত করবে তোমার শরীর।
যা-ও যেথায় ইচ্ছে সেথায় যা-ও
খুলে দিলাম ভালোবাসার শেকল বেড়ি
তুমি মুক্ত জীবনানন্দ, সমস্ত আকাশ তোমার।
ছলনা তো কেবল ললনারা-ই করতে পারে -
অবুঝ হৃদয়কে তাস বানিয়ে জুয়া খেলায় মাততে পারে।
ভালোবাসা জলাঞ্জলী দিয়ে যদি -
দায়িত্বের ভার কাঁধে তুলে সম্মান, সৌহার্দ্য, স্নেহ -
শ্রদ্ধার মতো সোনার হরিণ পাওয়া যায় -
এটাই বা কম কিসে?
আমার ভালোবাসা এতোটা শক্ত প্রাচীর তৈরী করতে পারেনি -
যা তোমার চলন্ত পথ রুদ্ধ করে দাঁড়াবে।
তুমি বাপের বেঠি --
কে রুখতে পারে তোমাকে?
একবার সিদ্ধান্ত নেওয়ার পর এর শেষ না দ্যাখা-
পর্যন্ত তুমি হাল ছাড়ো না
রক্ত ঝরাতে হলেও দ্বিধা করোনা।
তোমাতে-ই আমি আসক্ত --- আমাতে-ই তব বাস
তোমার চোখে দ্যাখি আমি স্নিগ্ধ ভোরের --
কুয়াশা ভেজা সবুজ ঘাসের নির্যাস।
ধনুক থেকে ছুঁড়া তীর -- আটকাতে পারে
আছে কি ভবে এমন বীর?
আমি আসক্ত অন্য নারীতে ---
ভিন্ন নারী আমাতে বাস ---
আমার টি-শার্টে লেপ্টে থাকে ভিন্ন নারীর নিঃশ্বাস
এমন অভিযোগ ছুঁড়ে --- ছাড়ো দীর্ঘশ্বাস।
আমার জীবনের সাথে জড়ানোর পর থেকে ---
তোমাকে যদি একদণ্ড-ও সুখ না দিয়ে থাকি ---
তাহলে সুখের সওদা করতে যেথা ইচ্ছে সেথা যাও
যাকে ইচ্ছে তাঁকে বুকের অলিন্দে ঠাঁই দাও।
সুখের আকাশে উড়তে গিয়ে যদি কখনো --
নাটালির সুতোয় টান পড়ে ---
ক্লান্ত হ'য়ে আসে দেহ ---
ডানা থেকে ঝরতে থাকে পালক ---
তাহলে চলে এসো ---- ফিরে এসো ---
বুক পেতে দেবো।

১২/০৬/২০২২ সৌদি আরব

মন্তব্য যোগ করুন

কবিতাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে লগইন করুন।

মন্তব্যসমূহ