আজ ১৩ অগ্রাহায়ণ ১৪২৮, রবিবার

সোনালি ফুল
- তীর্থ ত্রৈণ

এই অন্ধকারকে আমি বেছে নিয়েছি, পুরনো বইয়ের পাতায় জমা ধূলোর মত মলিনতাকে আমি অকুণ্ঠ পান করেছি, আলো খুব তীব্র বিষ মিশিয়ে দেয় রক্তে, তারচে এই অন্ধকারে মানিয়ে নেয়া সহজ, আঁধারের প্রত্যেকটি কণা একেকটি চেতনা, কখনো দখিনা হাওয়ায় তুমি তুমি হাহাকার ভেসে আসে জানালা দিয়ে,
অন্ধকারকে মনে হয় প্রেম, মৃত্যু্, কামনা। দেয়ালের টিকটিকিদের সঙ্গমের মত প্রয়োজনীয় মনে হয় অন্ধকার। তুমিও কি মেলে ধরোনা তোমাকে অন্ধকারের আলোর ভেতর? বেঠোফেনের মুনলাইট কি এত সুন্দর হতো অন্ধকার ব্যতীত!
আমি অন্ধকারের উপজীব্য, অজগরের শ্বাস-প্রশ্বাসের মত অচল, আমি বয়ে চলা স্থির কোনো জলজ গাছ, আঁধারে যার জন্মমৃত্যু, ফোঁটে সোনালি রঙের ফুল।

মন্তব্য যোগ করুন

কবিতাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে লগইন করুন।

মন্তব্যসমূহ