আজ ১৩ আষাঢ় ১৪২৬, বৃহস্পতিবার

"সুনিপুণা"
- Md. Osmangani shuvo

সুনিপুণা
তুমি নিপুণ হাতে আঁকছো তোমার সুনিপুণ শিল্পীকে।

সুনিপুণা
তুমি দুই অঙ্গুলি দিয়ে আঁকছো কত স্বপ্নছবি।

সুনিপুণা
ছবি আঁকার সময় তোমার কালো এলোচুলগুলো যখন নয়ন উপচে পড়ে তখন তুমি আঁক আরও সুনিপুণ।

সুনিপুণা
তোমার অঙ্কিতমুহূর্তের দন্তের মনোহারিণী ঐশ্বর্য
মম মন কাঁড়ে,কারণ সুনিপুণা আমিযে তোমার কবি হতে চাই অনেক জন্ম আগে।

সুনিপুণা
তোমার সাদা-সফেদ ঠৌঁট অনেকের হৃদয়পটের
আঁকা ছবিকে নাড়া দেয় জনমনাড়া।

সুনিপুণা
তোমার লাল নীল চুরিগুলো অচেনা কবির মনের মর্মতলে মরণ ঝাঁকুনি দেয়।

সুনিপুণা
তুমি হঠাৎই উঠে চলে গেলে থেমে গেল অচেনা কবির কবিতার খাতা।

সুনিপুণা
এভাবে ছবি আঁকা রেখে উঠে যেতে নেই।

সুনিপুণা
তাহলে যে কবিদের মহানমনে দুর্ভিক্ষ আর খরা নেমে আসে।

সুনিপুণা
তুমি ফিরে আস!!
আর একটিবার ফিরে আস।।

সুনিপুণা
আবার পুনরায় আঁক আমার ভাঙ্গা হৃদয়ের স্কেচ
আঁক আমার মনের কথাগুলো, যারা না বুঝে মনের কথাগুলো তারা আজ এই স্কেচ-ছবি দেখে শিখবে, দেখবে একি! এই ভাঙ্গা হৃদয়ের স্কেচটি কার!

সুনিপুণা
আমি তখন বলব, এই তো এটায় আমার ভাঙা হৃদয়ের স্কেচ, যেটা ভেঙেছিলে তুমি নিজেই।

সুনিপুণা
ফিরে আস!
ফিরে আস!!
ফিরে আস!!!
ফিরে আসো দয়া করে,
আঁক কবির ভাঙ্গা হৃদয়ের স্কেচ, আঁক!

মন্তব্য যোগ করুন

কবিতাটির উপর আপনার মন্তব্য জানাতে লগইন করুন।

মন্তব্যসমূহ